সিলেটের ছয় সীমান্তে বিজিবির নজরদারি বৃদ্ধি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, সিলেট
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)র লোগো

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)র লোগো

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের আসামে চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) প্রকাশের পর সিলেটের ছয়টি উপজেলার সীমান্তে নজরদারি বৃদ্ধি করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

ভারতের আসাম রাজ্যের সঙ্গে সিলেট জকিগঞ্জ উপজেলার মূল সংযোগ রয়েছে। এছাড়া সিলেটের জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট, বিয়ানীবাজার, কোম্পানীগঞ্জ ও কানাইঘাট উপজেলায় ভারতের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে।

বিজিবি জানিয়েছে, নিয়মিত টহল আগের চেয়ে বাড়ানো হয়েছে। স্থানীয়দের সর্তক থাকতে বলা হয়েছে। বিশেষ করে সীমান্ত এলাকায় যারা কৃষিকাজ করে তাদেরকে অস্বাভাবিক কিছু চোখে পড়লে বিজিবিকে জানাতে বলা হয়েছে। তবে এনআরসি প্রভাবে এখনই সীমান্তে কোনো প্রভাব পড়ার আশঙ্কা নেই বলে মনে করছে বিজিবি।

বিজিবি-১৯ (জকিগঞ্জ) এর পরিচালক লে. কর্নেল সাঈদ হোসেন বলেন, গত বছর প্রথম এনআরসি প্রকাশের পরই হেড কোয়ার্টার্সের নির্দেশে সতর্কাবস্থায় রয়েছে বিজিবি। শনিবার মৌখিকভাবে আবারও সতর্কতা জারি করা হয়। সে অনুযায়ী সীমান্তে সর্বোচ্চ নজরদারি বৃদ্ধি করেছে বিজিবি।

বিজিবি-৪৮ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল বলেন, সিলেটের ছয় উপজেলায় ভারতের সীমান্ত রয়েছে, সেগুলোতে আমাদের নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। কোনো ধরনের পুশ-ইন বা অবৈধ অনুপ্রবেশ দেখা গেলে তা ঠেকাতে বিজিবি প্রস্তুত আছে।

তবে এসব বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত, শনিবার ভারতের এনআরসি প্রকাশিত হয়েছে। এতে ১৯ লাখ বাসিন্দা ভারতীয় নাগরিকত্ব হারান।

আপনার মতামত লিখুন :