সুরের মূর্ছনায় সঙ্গীতে মাতবে বিশ্বকাপ (ভিডিও)

‘লিভ ইট আপ’-রাশিয়া বিশ্বকাপের থিম সং। স্বাগতিক রাশিয়া এই মোটো কাজে লাগিয়ে বিশ্বের আরো কাছে পৌঁছে যেতে পারে। রাশানরা সুর বাঁধতে পারেন ‘লিভ আপ রাশিয়া’।

বৃহস্পতিবার ঢাকার সময় রাত সাড়ে আটটায় থিম সং বেজে উঠবে রাশিয়ার লুজনিকি স্টেডিয়ামে। এরপর মিউজিক্যাল ম্যাজিক শো। কে কে গাইবেন। উদ্বোধনীতে কি থাকবে এ নিয়ে বিশ্বের ফুটবল ভক্ত, সঙ্গীত পিপাসু মানুষের আগ্রহের শেষ নেই।  

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রতি দর্শকদের এই আগ্রহ বরাবরই। কে গাইবেন থিমসং, বাদন দলে বিখ্যাত কে কে থাকছেন? কিংবা কেইবা নৃত্য পরিবেশন করতে প্রস্তুত। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে এই খোঁজখবর নিতে চেষ্টা থাকে বিশ্বব্যাপী অনুরাগীদের।

বরাবরের মতো রশিয়া বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়েও ফুটবল প্রেমীদের আগ্রহের কমতি নেই। রাশিয়া আধঘন্টার অনুষ্ঠানে কি চমক দেবে তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে। ফিফা জানিয়েছে,অন্যান্য আসরের তুলনায় কিছুটা ভিন্ন ও সংক্ষিপ্ত হবে এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। থাকবে সঙ্গীতের প্রাধান্য।

ক্ল্যাসিক্যাল গান দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সাজিয়েছে ফিফা। ইংলিশ পপ গায়ক খ্যাতিমান রোবি উইলিয়ামস শুরুতেই সঙ্গীত পরিবেশন করবেন। এরপর একে একে পারফর্ম করবেন স্বাগতিক রাশিয়ার বিখ্যাত সপরানো গায়িকা গারিফুলিনা, স্প্যানিশ অপেরা গায়ক প্লাসিডো ডোমিঙ্গো ও পেরুভিয়ান টেনর গায়ক হুয়ান দিয়েগো ফ্লোরেজ। পিয়ানোবাদক মাতসুয়েভ ছাড়াও থাকবেন আরো ক’জন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অপেরা গায়ক।

প্রায় পাঁচশত নৃত্যশিল্পী,জিমন্যাস্ট ছাড়াও শারীরিক কসরতবিদ পারফর্ম করবেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। আতশবাজির ফোয়ারায় রঙিন হয়ে উঠবে লুঝনিকির রাতের আকাশ। রঙিন আলোর ঝলকে দর্শকদের মন রাঙিয়ে শেষ করবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

রাশিয়া বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ ইট আপ’ এর তিন শিল্পী উইল স্মিথ,নিকি জ্যাম ও ইরা ইসত্রেফি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকবেন কিনা ফিফা তা উল্লেখ করেনি। যদিও ফিফা ওয়েবসাইটে ২৩ মে লেখা হয়েছে, থিম সংয়ের কোরাসের সঙ্গে ঠোঁট মেলাবেন তিন শিল্পী। মূলত ভিডিও প্রেজেন্টেশন করা হতে পারে অনুষ্ঠানের শুরুতে বা শেষে। যেখানে বিশ্বের সব খ্যাতিমান ফুটবলারদের এক মঞ্চে নিয়ে আসা হবে থিম সংয়ের ভিডিও প্রদর্শনের মধ্যদিয়ে।

শুধু, নাচ-গান, থিম সং, বা নানা অনুষ্ঠানই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আকর্ষণ নয়। বিশ্বের নানা দেশের রাষ্ট্রোনায়ক, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, ফিল্ম স্টাররাও লুজনিকি স্টেডিয়ামে দ্রুতি ছড়াবেন।

উদ্বোধনী মঞ্চে থাকছেন ব্রাজিলের সাবেক চ্যাম্পিয়ন সুপার স্টার, দ্যা ফেনোমেনান রোনালদো। যিনি এরই মধ্যে বিশ্বকাপের ভেন্যু রাশিয়ায় রয়েছেন। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে খ্যাতিমান সাবেক তারকা ফুটবলাররা এরইমধ্যে ভেন্যুর শহরে পৌঁছে গেছেন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্রালাদিমির পুতিনের সংক্ষিপ্ত ভাষণের মধ্যদিয়ে শুরু হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আর রাশিয়া-সৌদি আর ম্যাচ দিয়ে বাজবে একাদশ বিশ্বকাপের বাঁশি। ফিফার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বাইরেও মস্কোর রেড স্কয়ারে হবে একটি কনসার্ট।

লুজনিক স্টেডিয়ামে উপস্থিত থেকে ৮০ হাজার দর্শক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগ করবে। বিশ্বের নানা প্রান্তে টিভির পর্দায় অনুষ্ঠানকটি দেখবেন শত কোটি মানুষ। ফিফা আশা করছে এবার টিভির দর্শক বিশ্বে আগের চেয়েও বেশি হবে। ইউটিউব, অনলাইনেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে ব্যাপক ভাবে ভীড় জমাতে পারে দর্শক।

জাতীয় এর আরও খবর