১৬ দিনের অনশন ভাঙলেন শিক্ষকরা

ঢাকা: টানা ১৬ দিনের অনশন ভাঙলেন এমপিওভুক্তির দাবিতে আন্দোলনরত নন-এমপিও শিক্ষকরা।

বুধবার (১১ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান নন-এমপিও শিক্ষকদের পানি পান করিয়ে এ আমরণ অনশন কর্মসূচি ভাঙান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক তত্ত্ববধায়ক সরকারের আহ্বায়ক ড. রাশেদা কে চৌধুরী, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টির সদস্য জিয়াউদ্দিন তারেক আলী ও সরওয়ার আলী।

এর আগে গত এক মাসের বেশি সময় ধরে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের ব্যানারে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষকরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছিলন। ২৫ জুন থেকে অনশন কর্মসূচি পালন করে আসছেন শিক্ষকরা। 

একই সঙ্গে বিগত ১৬ দিন ধরে তারা এমপিওভুক্তির দাবিতে আমরন অনশন কর্মসূচি পালন করে আসছিলেন।  কর্মসূচির ১৭ তম দিনে এসে অনশন ভাঙলেন শিক্ষকরা।

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, আমি আপনাদের সহকর্মী হিসেবে উপস্থিত হয়েছি। আপনারা অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন। এ কর্মসূচিতে দেশের সমস্ত মানুষ উদ্বিগ্ন। প্রধানমন্ত্রী সংসদে যে বক্তব্য দিয়েছে তাতে আপনাদের সমস্যার সমাধান খুঁজে পাব। যে দাবি জানিয়েছেন সেটা শিক্ষামন্ত্রী গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করবেন ।নাগরিক সমাজের অনুরোধ আপনারা অনশন করবেন না।  ছাত্র-ছাত্রীদের বিষয় বিবেচনা করে অনশন কর্মসূচি ভঙ করুন। তাদের শিক্ষা প্রদান করেন।

নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায়ের বার্তা২৪.কমকে বলেন, জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেছেন প্রধানমন্ত্রী আমাদের দাবি মেনে নিয়েছে। নন এমপিও শিক্ষকদের পর্যায়ক্রমে এমপিও করা হবে। এই আশ্বাসে আমরা আমদের কর্মসূচি প্রত্যাহার করছি। আমরা এখন বাড়ি ফিরে যাব।

উল্লেখ, এর আগেও শিক্ষকরা এমপিওর দাবিতে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করেছিল। তখন ৫ জানুয়ারির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের প্রতিশ্রুতি দিলে শিক্ষকরা বুকভরা আশা নিয়ে রাজপথ ছাড়েন। তবে শিক্ষকদের আশার মধ্যে পানি ঢেলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। চলতি বছরের বাজেটে এমপিও ভুক্তির জন্য কোনো বরাদ্দ দেওয়া হয়নি।

ফলে শিক্ষকদের স্বপ্ন ভেঙ্গে হতাশায় পরিণত। তার পরে থেকে শিক্ষকরা আবারও ননএমপিও শিক্ষকদের এমপিও ভুক্তির আন্দোলন জোরালো করেন। এর ফলশ্রুতিতে প্রেসক্লাবের সামনে এই কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষকরা। 

 

জাতীয় এর আরও খবর