ছেলে হত্যা মামলায় মাসহ ৫ জনের যাবজ্জীবন

কান্ট্রি ডেস্ক, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ছেলে মুরাদুল ইসলাম সুমন (২২) হত্যা মামলায় তার মা হাসিনা, ভাই (মুরাদের) মো. সোহেল ও আরও ৩ ভাড়াটিয়াসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন করাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ১ বছরের জেল দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ড. এ কে এম আবুল কাশেম এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে সাদ্দাম নামের এক আসামি উপস্থিত ছিলেন। অন্যরা পলাতক রয়েছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কমলনগর উপজেলার চর জাঙ্গালিয়া গ্রামের মৃত মমিন উল্লাহর ছেলে মো. সাদ্দাম হোসেন (২৫), সদর উপজেলার সাহাপুর গ্রামের মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে মো. সোহেল, মুরাদুল ইসলাম সুমনের মা হাসিনা বেগম, মৃত আনোয়ার উল্যাহের ছেলে আবদুর রহিম ও ইসমাইল হোসেন প্রকাশ ওরফে কালা ইসমাইল।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি নিখোঁজ হন পৌরসভার সাহাপুর গ্রামের মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে মুরাদুল ইসলাম সুমন। দুই দিন পর ৮ ফেব্রুয়ারি পার্শ্ববর্তী বাঙ্গাখাঁ ইউনিয়নের রাধাপুরের একটি ডোবায় তার মরদেহ পাওয়া যায়। পরের দিন নিহতের মা হাসিনা বেগম বাদী হয়ে তার ছেলেকে দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে অভিযোগ এনে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ তদন্ত করে সাদ্দাম নামের একজনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা।

সুমনের মা ও তার ভাইয়ের সম্পৃক্ততায় ৯০ হাজার টাকার বিনিময়ে ৫ জন মিলে হত্যার কথা স্বীকার করেন। মূলত পারিবারিক বিরোধের জেরে মুরাদুলকে হত্যা করা হয়। পরে সাদ্দামের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশের এস আই আবুল বাশার ২০১৪ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর আদালতে নিহতের মা ও ভাইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত বাদী ও বিবাদী পক্ষের আইনজীবীদের দীর্ঘ শুনানিতে ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ রায় দেন।

লক্ষ্মীপুর জজকোর্ট সরকারি কৌশলী (পিপি) অ্যাডভোকেট জসীম উদ্দিন রায় বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আইন সবার জন্য সমান। অপরাধী যেই হোক না কেন সাজা তাকে পেতেই হবে।

আপনার মতামত লিখুন :