বশেমুরবিপ্রবি‘তে উপাচার্যপন্থী প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয়

স্টাফ করেসপনডেন্ট, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে উপাচার্য খন্দকার নাসির উদ্দিনপন্থী প্যানেল নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করেছে। মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) অনুষ্ঠিত নির্বাচন প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ বিশ্ববিদ্যালয়টিতে প্রথম সরাসরি নির্বাচন।

নির্বাচনে দুটি দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। একটি উপাচার্যপন্থী মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী শিক্ষক জোট (নীল দল) এবং অন্যটি উপাচার্য বিরোধী বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার শিক্ষক ঐক্য প্যানেল।

মঙ্গলবার সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। মোট ভোটার ছিল ১৭৫ টি যার ১৭১ টি ভোট কাস্ট হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ভবনে ভোটগ্রহণ চলে।

এ নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মানসুরা খানম এবং কমিশনার হিসেবে ছিলেন ইইই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জপতোষ মন্ডল ও ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শামস আরা খান।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় নির্বাচন কমিশন ফলাফল ঘোষণা করে। ফলাফল থেকে দেখা যায়, সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ১৫টি পদের সবকটি উপাচার্যপন্থী মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী শিক্ষক জোট মনোনীত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।

/uploads/files/XICvhRG8k5ZNp4hTbQMkt6QFaKW4uFWbCsZQGnay.jpeg

সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন অধ্যাপক মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান ভুঁইয়া এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সহকারী অধ্যাপক ঈশিতা রায় নির্বাচিত হন।

সহসভাপতি, কোষাধ্যক্ষ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, প্রচার সম্পাদক পদে যথাক্রমে আবুল বাশার রিপন খলিফা, এইচ এম আনিসুজ্জামান, ছায়েদা মাহমুদা ও মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান।

এছাড়াও সদস্য হিসেবে একই প্যানেল থেকে নির্বাচিত হন মাহফুজা আকতার, মুমতাহানা মৌ, মো কামরুজ্জামান, মনোয়ার হোসেন, মাইনুল হোসেন, পান্থ প্রতিম সরকার, তরিকলু ইসলাম, মাসুমা পারভীন ও তন্ময় বর্মণ।

নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর শিক্ষক সমিতির নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সকল সমর্থকদের ধন্যবাদ জানান এবং তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীদের জন্য কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

সদস্য হিসেবে নির্বাচিত বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মুমতাহানা মৌ বার্তা২৪.কমকে বলেন, আমাদের প্যানেলটির জয় শিক্ষক সমাজের জয়।  আমরা প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে শিক্ষকদের স্বার্থে কাজ করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ থাকব। শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রী সকলের কল্যাণে কাজ করব।

আপনার মতামত লিখুন :