সংরক্ষিত সদস্যদের যৌন হয়রানি করছে চেয়ারম্যান!

কান্ট্রি ডেস্ক, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইল: সদর উপজেলার মাইজপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি ও অশালীন আচরণের অভিযোগ উঠেছে। আর এই অভিযোগ করেছেন ওই ইউনিয়নের নারী সংরক্ষিত সদস্যরা (মেম্বার)। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্নস্থানে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তারা।

লিখিত অভিযোগে মাইজপাড়া ইউনিয়নের সংরক্ষিত সদস্য (১, ২ ও ৩) লাভলী বেগম, (৪, ৫ ও ৬) আনজিরা বেগম ও (৭, ৮ ও ৯) আরবা বেগম অভিযোগ করেন।

অভিযোগে বলা হয়, মাইজপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান একজন লম্পট ও টাউট প্রকৃতির ব্যক্তি। তার কাছে নারী মেম্বারদের কেউ কোনো কাজে গেলে তা করে দেয়ার বিনিময়ে কুপ্রস্তাব দেন। কোনো ভাতা বা ভিজিডি কার্ডের কথা বলতে গেলেই নানা ভাবে নারী মেম্বারদের নাজেহাল করেন। একটু আন্তরিক হয়ে অনুরোধ করতে গেলেই গোপনে দেখা করতে বলেন। মাইজপাড়া বাজারে তার ব্যবসা কেন্দ্রের গোপন কক্ষে যেতে বলেন। কোনো বরাদ্দ বা প্রকল্পের কাজের ব্যাপারে কথা বলতে গেলেই শরীরে হাত দেয়ার চেষ্টা করেন। নিরাপত্তাহীন হয়ে তারা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মাইজপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, নারী মেম্বাররাই তাকে বিভিন্ন সময়ে উত্ত্যক্ত করেন। সুযোগ সুবিধা নেয়ার জন্য তাকে উল্টা কুপ্রস্তাব দেয়া হয় বলে পাল্টা অভিযোগ করেন তিনি।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা সেলিম চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।