প্রণব মুখার্জীর স্ত্রী শুভ্রার তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

কান্ট্রি ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইল: নড়াইলের মেয়ে এবং ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর স্ত্রী শুভ্রার তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ (১৮ আগস্ট)। ২০১৫ সালের আজকের এই দিনে ভারতের আর্মি হাসপাতালে (রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

এ উপলক্ষে শুভ্রা মুখার্জী ফাউন্ডেশনের আয়োজনে সদর উপজেলার তুলারামপুর শ্রী শ্রী গোপাল মন্দির ও কালী মন্দিরে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল স্বর্গীয় শুভ্রা মুখার্জীর আত্মার শান্তি কামনায় পূজা, পবিত্র গীতা পাঠ ও নাম সংকীর্তন এবং শুভ্রা মুখার্জীর জীবন নিয়ে আলোচনা।

জানা গেছে, শুভ্রা মুখার্জী ১৯৪৭ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর নড়াইল সদর উপজেলার চিত্রা পাড়ের ভদ্রবিলা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম অমরেন্দ্রনাথ ঘোষ, মা মীরা রাণী ঘোষ। শৈশবকালে তুলারামপুর গ্রামে মামাবাড়ি থেকে চাচড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেন। ১৯৫৫ সালে প্রায় ১২ বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে ভারতে চলে যান তিনি।

৯ ভাই-বোনের মধ্যে শুভ্রা ছিলেন দ্বিতীয়। ভারতে বসেই প্রণব মুখার্জীর সঙ্গে বিয়ে হয় তার। প্রণব মুখার্জীর সঙ্গে বিয়ের সময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর। আর প্রণবের ২২ বছর। ভালোবেসেই বিয়ে করেন তারা। শুভ্রা ও প্রণব মুখার্জীর দুই ছেলে অভিজিৎ ও সুরজিৎ এবং এক মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখার্জী সকলেই ভারতে বসবাস করেন।

দেশ স্বাধীনের পর নাড়ির টানে ১৯৯৫ সালে মেয়ে শর্মিষ্ঠাকে নিয়ে শুভ্রা বেড়াতে এসেছিলেন নড়াইলে। ২০১৩ সালের ৫ মার্চ ভারতের রাষ্ট্রপতি তিনদিনের সফরে বাংলাদেশে এসে স্ত্রী শুভ্রা মুখার্জীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি নড়াইলের ভদ্রবিলা গ্রামে বেড়াতে গিয়েছিলেন।

প্রণব মুখার্জী তার স্ত্রীর নামে জন্মস্থান নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে ৩ তলা বিশিষ্ট একটি ছাত্রী হোস্টেল, মামা বাড়ি চাঁচড়ায় একটি মন্দির ও একটি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণ করে দেন।