চট্টগ্রামের সাগরিকায় দেশি পশুর কদর বেশি

রকিব কামাল, বার্তা২৪.কম
চট্টগ্রামের সাগরিকায় জমে উঠেছে কোরবানি পশু বিক্রি। ছবি: বার্তা২৪

চট্টগ্রামের সাগরিকায় জমে উঠেছে কোরবানি পশু বিক্রি। ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের প্রধান কোরবানির পশুর হাট সাগরিকা জমে উঠতে শুরু করেছে। সীমান্তে কড়াকড়ির কারণে কদর বেড়েছে দেশি পশুর। ফলে ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে কিনতে পেরে ক্রেতারা যেমন খুশি, তেমনি আশানুরুপ দাম পেয়ে বিক্রেতারাও খুশি।

বিকেলে সাগরিকা বাজার প্রবেশ করতেই চোখে পড়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্থ থেকে ট্রাকে করে আসা কোরবানির পশু। পাশাপাশি স্থানীয় গৃহস্থ ও খামারিরাও নিয়ে এসেছেন কোরবানির পশু।  এসব গবাদি পশুর মধ্যে গরু, ছাগল, দুম্বা ও উঠের সংখ্যাই বেশি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/18/1534608501064.gif

কুষ্টিয়া থেকে আনা গরুর ব্যবসায়ী লাভলু ব্যাপারী বলেন, গতকাল রাতে দুই ট্রাক গরু নিয়ে এসেছেন। এর মধ্যে এক ট্রাক গরু বিক্রি হয়ে গেছে। আকারভেদে প্রতিটি গরু ৭০ থেকে ৭৫ হাজার বা  ১ লাখ টাকায় বিক্রি করেছেন। আশানুরুপ দাম পাওয়ায় খুশি তিনি।

তিনি আরও বলেন, গরুর পরিচর্যা, খাবার, পরিবহনসহ সব মিলিয়ে দাম হাঁকাচ্ছেন ব্যাপারীরা।

নগরীর অক্সিজেন এলাকা থেকে শহিদুল নিয়ে এসেছেন কালো রঙের কালু ষাড়। দাম হাঁকাচ্ছেন ৪ লাখ টাকা। সাড়ে ৩ লাখ পেলে বিক্রি করে দিবেন বলেন জানান তিনি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/18/1534608539745.gif

তবে ঈদের আরও তিন দিন বাকি থাকায় ক্রেতার চেয়ে দর্শনার্থীর সংখ্যা বেশি দেখা গেল। ছোট শিশু, বয়সী অনেকেই নগরীর বিভিন্ন প্রান্তে এসেছেন বাজার ঘুরতে।

নগরীর জামালখান থেকে গরু কিনতে আসা মো. মোজাম্মেল জানালেন, বাজারের গরুর দাম দেখতে এসেছেন। গবাদি পশু রাখার সমস্যার কথা মাথায় রেখে দুদিন আগে গরু কিনবেন বলে জানান তিনি।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে বেশির ভাগ ক্রেতারা চাহিদার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে দেশি পশুর কিনতে আগ্রহী। যতই দিন বাড়বে ততই বিক্রি বেড়ে যাবে গবাদি পশুর। শেষ দুই দিনে হাঁপ ছেড়ে বাঁচার সুযোগ থাকে না বলে জানান তারা।

এদিকে যে কোনো ধরনের অপ্রিতিকর পরিস্থিতি এড়ানোর লক্ষ্য প্রস্তুত রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। জেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগ থেকে সার্বক্ষণিক বাজার মনিটরিং করা হচ্ছে। এছাড়া গবাদি পশুর পরিচর্যার কাজ করছে ভোটোনারি টিম।

 

আপনার মতামত লিখুন :