অলস সময় কাটাচ্ছেন পোশাক ব্যবসায়ীরা

ডিস্ট্রিক করেসপন্ডেন্ট
অলস সময় কাটাচ্ছে দোকানের কর্মচারীরা। ছবি: বার্তা২৪.কম

অলস সময় কাটাচ্ছে দোকানের কর্মচারীরা। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বরিশাল: আর মাত্র দুইদিন পরেই কোরবানির ঈদ। আর এই ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতিবছর বিভিন্ন পোশাকের দোকানে উপচে পড়া ভিড় থাকে। তবে এবার বরিশালে ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে। বরিশাল নগরীর চকবাজার, গীর্জামহল্লা, কাটপট্টি, সদররোডের মার্কেটগুলোতে কেনাকাটা এখনো জমে ওঠেনি।

মার্কেটগুলো ঘুরে দেখা গেছে, অলস সময় কাটাচ্ছে দোকানের কর্মচারীরা। তবে কিছু দোকান ও মার্কেটের সামনের ফুটপাতে ক্রেতা দেখা গেছে। তাদের মধ্যে অধিকাংশ ক্রেতাই কিনছে ছোটদের পোশাক।

নগরের চকবাজার এলাকার জাহানারা মার্কেটের ছায়মা গার্মেন্টসের মালিক শহিদুল ইসলাম জানান, পূর্ববর্তী সময়ের থেকে এবার বিক্রি খুবই কম। এবার মার্কেটে যে পরিমাণ ক্রেতা আসছে, অন্য সময়ে এর চেয়ে বেশি ক্রেতা পাওয়া যায়।

পোশাক বিক্রয়ের প্রতিষ্ঠান চন্দ্রঁবিন্দুর ম্যানেজার মো. শামিম বলেন,‘আমাদের শপে শিশুদের কালেকশন বেশি রয়েছে। কিন্তু অন্যান্য উৎসবের তুলনায় ক্রেতা সংখ্যা অনেক কম। তবে নিত্যদিনের ক্রেতার সংখ্যার থেকে একটু বেশি রয়েছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/19/1534656988996.jpg

নগরের আলেকান্দা থেকে পোশাক কিনতে আসা রফিক মিয়া বলেন, ‘কোরবানির ঈদে মূলত পশু কেনার দিকেই ঝোঁক বেশি থাকে। কিন্তু বাসার ছোটদেরতো নতুন পোশাক চাই। তাই সন্তানদের জন্য পোশাক কিনতে এসেছি।’

তবে শুধু পোশাকের দোকানগুলোতেই নয়, জুতা, প্রসাধনী সামগ্রীর সকল দোকানেই একই চিত্র দেখা গেছে।

এদিকে কোরবানির ঈদকে ঘিরে কথা হয় চকবাজার, কাটপট্টি, গীর্জামহল্লা মার্কেটের ব্যবসায়ী সমিতির কয়েকজন নেতার সঙ্গে।

তারা জানান, ঈদকে ঘিরে পোশাক বা প্রসাধনী বিক্রয়ের যে প্রত্যাশা থাকে সে অনুপাতে এবার ক্রেতা খুবই কম। সবাই এখন হাটগুলোতে কোরবানির পশু ক্রয়ে ছুটছে।

আপনার মতামত লিখুন :