Alexa

ভিক্ষুকমুক্ত উপজেলা গড়ার উদ্যোগ নিলেন ইউএনও

ভিক্ষুকমুক্ত উপজেলা গড়ার উদ্যোগ নিলেন ইউএনও

স্থানীয় ভিক্ষুকদের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন ইউএনও ওয়ালীউল হাসান/ ছবি: বার্তা২৪.কম

ভিক্ষুকমুক্ত উপজেলা গড়ার উদ্দেশ্যে স্থানীয় ভিক্ষুকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন নেত্রকোনার মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)।

মতবিনিময় সভায় গঠন করা হয় ভিক্ষুকমুক্ত তহবিল। ভিক্ষুকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য হাতে নেওয়া হয় বিভিন্ন প্রকল্প। প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে- গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগি পালনসহ ক্ষুদ্র ব্যবসা।

শুধু তাই নয়, এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে উপজেলার সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এক দিনের বেতনের অর্থ ওই ভিক্ষুকমুক্ত তহবিলে জমাও করা হয়।

ভিক্ষুক মুক্ত উপজেলা গড়ার উদ্যোক্তা হচ্ছেন মদন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ওয়ালীউল হাসান। তিনি বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) তার কার্যালয়ের সামনে উপজেলার দুই শতাধিক ভিক্ষুককে নিয়ে মতবিনিময় সভা করেন।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. ইসমাইল হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান ফকর উদ্দিন আহমেদ, মদন প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোতাহার আলম চৌধুরী, প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেনসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের বিভিন্ন দফতরের কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে ইউএনও মো. ওয়ালীউল হাসানের সাথে কথা হয়। তিনি বার্তা২৪কে বলেন, ‘মদন উপজেলায় প্রায় ৩০০ ভিক্ষুক রয়েছে। তাদের পুনর্বাসনের জন্য একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে এবং তহবিলে উপজেলার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একদিনের বেতনের টাকা দেওয়া হয়েছে।’

ভিক্ষুকমুক্ত উপজেলা গড়ে তুলতে প্রাথমিকভাবে ৫০ জন ভিক্ষুককে তাদের চাহিদা অনুযায়ী কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়া হবে এবং পর্যায়ক্রমে সকল ভিক্ষুককে কর্মমুখী করে তোলার মাধ্যমে ভিক্ষাবৃত্তি থেকে মুক্তি দেওয়া হবে বলেও জানান ইউএনও।