Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা

খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা
খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত গাছিরা। ছবি: বার্তা২৪.কম
অলোক সাহা
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
ঝালকাঠি
বার্তা২৪.কম 


  • Font increase
  • Font Decrease

শীতের সকালে খেজুরের রস খেতে কম বেশি সবাই পছন্দ করে। বিশেষ করে বিভিন্ন পিঠার সঙ্গে খেজুরের রস অথবা গুড় দিয়ে খেতে ভালো লাগে।

তাইতো ঝালকাঠির গাছিরা এখন খেজুরের রস সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছে। পৌষের কনকনে শীত উপেক্ষা করে শিশির ভেজা সকালে খেজুর গাছ থেকে রসের হাঁড়ি নামায় তারা।

বর্তমানে শীত থাকায় গাছ থেকে বেশি পরিমাণে রস পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছে গাছিরা। তাইতো দম ফেলার সময় নেই তাদের। খেজুরের রসের পর্যাপ্ত চাহিদা থাকায় গাছিদের কদর বেড়েছে অনেক।

খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করে তা জ্বাল দিয়ে পাটালি গুড় বানানো হয়। সকলের কাছে এই গুড়ও বেশ পছন্দের। শীতের সকালে লোকজন খেজুরের রস খেয়েও বেশ মজা পায়।

গ্রাম ও শহরের মানুষরা খেজুরের রস দিয়ে তৈরি করা নানা রকমের পিঠা ও পায়েস খুব আয়েশ করে খায়। পিঠা-পুলি বানাতে খেজুরের রসের জুড়ি নেই।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/13/1547364662592.jpg

ঝালকাঠির বিভিন্ন গ্রামের রাস্তা-ঘাটে অসংখ্য খেজুর গাছ রয়েছে। যদিও আগের তুলনায় অনেক খেজুর গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। তারপরেও যে পরিমাণ গাছ রয়েছে সেগুলো থেকে প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ খেজুর রস সংগ্রহ করা হয়।

দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত গাছিরা খেজুর গাছ কেটে রস সংগ্রহের জন্য মাটির তৈরি হাঁড়ি ও প্লাস্টিকের কৌটা টাঙিয়ে দেয়। সারা রাত টুপ টুপ করে রস পরে জমা হয় হাঁড়িতে।

আবার কাক ডাকা ভোর থেকে খেজুরের রস সংগ্রহের জন্য নেমে পরে তারা। খেজুরের রস দিয়ে নরম গুড় তৈরি করা হয়। গাছ থেকে সংগ্রহ করা কাঁচা রসও খেতে অনেক মজা।

এক সময় ঝালকাঠি থেকে খেজুরের গুড় পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলায় বিক্রি করা হত। কিন্তু এখন চিত্র ভিন্ন। আগের মতো খেজুরের রস পাওয়া যাচ্ছে না। প্রতি হাঁড়ি রস বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি উপজেলার বৈদারাপুর গ্রামের গাছি আব্দুল সত্তার বলেন, ‘এখন আর আগের মতো খেজুর গাছ নেই। শীতের মৌসুমে খেজুরের গাছ থেকে রস সংগ্রহ করা হয়। দাম ভালো পাওয়ায় আমাদের মোটামুটি লাভ হচ্ছে।’

আপনার মতামত লিখুন :

বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি আহত

বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি আহত
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

যশোরের বেনাপোল সীমান্তের রঘুনাথপুরে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে সাইদুর রহমান (৩০) নামে এক বাংলাদেশি আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সাইদ বেনাপোল পোর্ট থানার রঘুনাথপুর গ্রামের পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত নুর ইসলামের ছেলে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রুহুল আমিন জানান, আহত সাইদ সহ কয়েকজন রঘুনাথপুর সীমান্তের মাঠ দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এ সময় জয়ন্তীপুর বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে সাইদের হাতে ও পিঠে গুলি লাগে। পরে তার সহযোগীরা তাকে উদ্ধার করে।

৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সেলিম রেজা দুপুরে নিশ্চিত করেন। বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমেকে তিনি বলেন, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের সময় এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।

মাদারীপুরে বন্যার্তদের পাশে ছাত্রলীগ

মাদারীপুরে বন্যার্তদের পাশে ছাত্রলীগ
ত্রাণ বিতরণ করছে শিবচর উপজেলা ছাত্রলীগ। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

মাদারীপুরের শিবচর চরাঞ্চলের তিনটি ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে। পানিতে রাস্তা-ঘাট তলিয়ে যাওয়ায় ভেঙে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। সেই সঙ্গে পদ্মার তীব্র স্রোতে দেখা দিয়েছে নদী ভাঙন।

তবে চরাঞ্চলের এসব বন্যা দুর্গত অসহায় মানুষের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে শিবচর উপজেলা ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) দুপুরে উপজেলার বন্দোরখোলা ইউনিয়নের চরাঞ্চলের পানিবন্দী প্রায় ২ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার তেল, ১ কেজি লবণসহ আনুষঙ্গিক নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট প্রতিটি পানিবন্দী পরিবারের মাঝে তুলে দেয়া হয়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/23/1563873967322.jpg

সংশ্লিষ্টরা জানান, উপজেলা ছাত্রলীগ, পৌর ছাত্রলীগ, কলেজ ছাত্র সংসদের নেতাকর্মীরা পানিবন্দী প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে ত্রাণ পৌঁছে দেয়ার কাজ করে।

শিবচর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসিব হোসাইন মাদবর বলেন, ‘শিবচরের চরাঞ্চলের পরিস্থিতি ভয়াবহ। পানিতে তলিয়ে গেছে পুরো অঞ্চল। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে এ অঞ্চলের মানুষ। ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আমরা তাদের সাহায্য করে যাচ্ছি।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- শিবচর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খায়রুজ্জামান খান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এনায়েত হোসেন হাওলাদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজীব ঢালী, সাধারণ সম্পাদক আসিফ হোসাইন মাদবরসহ উপজেলা, কলেজ, পৌর ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীরা।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র