Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

বস্ত্রের চাহিদা মেটাতে ‘মানবতার দেয়াল’

বস্ত্রের চাহিদা মেটাতে ‘মানবতার দেয়াল’
ছবি: বার্তা২৪
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
পাবনা
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

পাবনার সাঁথিয়ায় সেবামূলক প্রতিষ্ঠান সাঁথিয়া ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘মানবতার দেয়াল’ উদ্বোধন করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের এই ‘মানবতার দেয়াল’ বা বিনামূল্যে বস্ত্রের ভাণ্ডার থেকে চাহিদা মেটাতে প্রয়োজন অনুসারে এলাকার অসহায়, গরীব ও দুঃখী মানুষ বস্ত্র নিতে পারবেন।

সাঁথিয়া ফাউন্ডেশন সামাজিক কর্মকান্ডে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে এই মানবতার দেয়াল কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। সংগঠনের সম্পাদক ডা. মনসুরুল ইসলাম নিজ উদ্যোগে ২০১৪ সাল থেকে প্রত্যেক শুক্রবার সংগঠনের পক্ষে বিনামুল্যে রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে আসছেন। এছাড়াও একই সাল থেকে দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল ও প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত ২৬ জন গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে আসছেন।

সংগঠনের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ নিজাম উদ্দিন বলেন, বাল্যবিবাহ রোধ, স্বাস্থ্য সম্মত স্যানেটারী ল্যাট্রিন ব্যবহার, মাদক বিরোধী সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে সংগঠনের পক্ষ থেকে।

স্থানীয়রা বলছেন, মানবতার দেয়াল একটি মহৎ উদ্যোগ। আমাদের সাধ্যমত বস্ত্র এখানে রাখলে অসহায়, গরীব, দুস্থ ও শীতার্ত মানুষের জন্য অনেক উপকারে আসবে। বিত্তশালীদের এই মহৎ কার্যক্রমে নেপথ্যে থেকেই এগিয়ে আসতে হবে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

এদিকে পাবনা শহরের আব্দুল হামিদ রোডের দোয়ের পয়েন্টসহ কয়েকটি স্থানে মানবতার দেয়াল তৈরী করা হয়েছে। সেখানে রাখা আছে নানা বয়সীদের বস্ত্র। সুবিধাবঞ্চিতরা প্রয়োজনমত সেখান থেকে বস্ত্র নিয়ে যাচ্ছেন।

ফরিদপুর থেকে পাবনা শহরে এসে রিক্সা চালাচ্ছেন ষাটার্ধ হাবিবুর রহমান। তিনিও রিকশা থামিয়ে তার পড়নের সাইজের একটি জিন্সের প্যান্ট নিয়ে গেলেন। এ সময় তাকে জিজ্ঞাস করতেই তিনি বললেন, রিকশায় ভাড়া নিয়ে যাবার সময়ে এক আরোহী তাকে বলেছেন, বিনা পয়সায় এখান থেকে প্যান্ট নিয়ে গিয়ে পড়বে। হাবিবুর রহমান বলেন, শীতে লুঙ্গি পড়ে রিকশা চালাতে কষ্ট হয়। তাই এখান থেকে একটি প্যান্ট নিয়ে গিয়ে পড়ে রিকশা চালাবো।

সচেতন মানুষের প্রত্যাশা, মানুষের অভাব-অনটন তেমন নেই। ভিক্ষুক প্রায় উঠে গেছে। নিম্নআয়ের কিছু মানুষের জীবন মানের পরিবর্তন আসেনি। হয়তো চক্ষুলজ্জার কারণেই তারা মানুষের কাছে হাত পেতে কিছু নিতে লজ্জাবোধে থাকেন। তাই তারা যাতে নির্ধারিত স্থান থেকে না চেয়ে কিছু নিতে পারেন তার একটি উদাহরণ মানবতার দেয়াল। তাই সবাইকে সাধ্যমত বস্ত্র বা প্রয়োজনীয় জিনিষ মানবতার দেয়ালে রাখলে সুবিধাবঞ্চিতারা সহজেই তার নিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন বলে ধারণা তাদের।

আপনার মতামত লিখুন :

ভোলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দোকান কর্মচারীর মৃত্যু

ভোলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দোকান কর্মচারীর মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী

ভোলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মানিক (২৪) নামে এক দোকান কর্মচারীর মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২৫ আগস্ট) দুপুরে ভোলা সদর রোডে অবস্থিত সফিউদ্দিন মালিকানাধীন জাপান গ্লাস হাউজে এ ঘটনা ঘটে।

মানিক ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের আলগী গ্রামের মো. রতনের ছেলে।

জানা গেছে, দুপুরের দিকে দোকানের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত গোডাউন থেকে এস এস পাইপ নামাচ্ছিলেন মানিক। তখন অসাবধানতা বশত একটি পাইপ পাশে বিদ্যুতের তারে গিয়ে লাগে। এতে মানিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ভোলা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ছগির মিয়া এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মাদারীপুরের শিবচরে ট্রাকের চাপায় নিহত ১

মাদারীপুরের শিবচরে ট্রাকের চাপায় নিহত ১
সড়ক দুর্ঘটনার প্রতীকী ছবি

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মাদারীপুরের শিবচরে ট্রাকের চাপায় জাকির ফকির (৩৫) নামের একজন নিহত হয়েছেন। নিহত জাকির হোসেন শিবচর উপজেলার বাবলা তলা এলাকার ইমারত ফকিরের ছেলে। সে পেশায় ভ্যান চালক।

রোববার (২৫ আগস্ট) সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের হাজী শরিয়তউল্লাহ সেতুর পূর্বপাড়ে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যার দিকে কাঠালবাড়ি ঘাট থেকে ভাঙ্গাগামী একটি মালবাহী ট্রাক একটি ভ্যানকে চাপা দেয়। এ সময় ভ্যান চালক ঘটনাস্থলেই মারা যান।

শিবচর হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নবী হোসেন বলেন, 'একটি ট্রাক ভ্যানটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ভ্যানের চালক মারা যায়। ট্রাকটি আটকের চেষ্টা চলছে।'

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র