Alexa

ভ্যালেন্টাইন উদযাপনে প্রস্তুত কক্সবাজার

ভ্যালেন্টাইন উদযাপনে প্রস্তুত কক্সবাজার

ভ্যালেন্টাইন উদযাপনে প্রস্তুত কক্সবাজার। ছবি: বার্তা২৪.কম

ভ্যালেন্টাইন ডে (ভালোবাসা দিবস) উদযাপনে প্রতি বছরের মতো এবারও কক্সবাজারে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। পর্যটক মুখর হয়ে উঠেছে কক্সবাজার। এরই মধ্যে চার শতাধিক হোটেল, মোটেল ও রিসোর্টে শতভাগ বুকিং হয়ে গেছে। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। আগত দেশি-বিদেশি পর্যটকদের নিরাপত্তায় নেয়া হয়েছে বাড়তি ব্যবস্থা।

এদিকে কক্সবাজারে পর্যটন মৌসুমে বাড়তি চাপ থাকে। তার সঙ্গে ভ্যালেন্টাইন ডে। সব মিলিয়ে পর্যটন নগরীতে সাজ সাজ রব।

জানা যায়, প্রতি বছর ভ্যালেন্টাইন ডে’তে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সৈকতে ছুটে আসে হাজার হাজার পর্যটক। এবারও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। ইতোমধ্যে হোটেল, মোটেল ও রিসোর্টগুলো শতভাগ বুকিং হয়ে গেছে। তাই পর্যটকদের জন্য হোটেল, মোটেল ও রিসোর্টগুলো সাজছে ভিন্ন সাজে, থাকছে নানা আয়োজন। ব্যবসায়ীরা আশা করছেন ব্যবসা হবে জমজমাট।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/12/1549971164306.jpg

কক্সবাজার ভ্রমণে এসে বেশির ভাগ পর্যটক ভিড় জমান সৈকতের লাবণী, সুগন্ধা ও কলাতলী পয়েন্টে। তাই এই ৩টি পয়েন্টে পর্যটকদের সমুদ্র স্নানে নজরদারি বাড়ানোর কথা জানালেন লাইফ গার্ড সংস্থার কর্মকর্তা।

হোটেল মালিকদের দেয়া তথ্য মতে, গত বছরে ভ্যালেন্টাইন ডে'তে কক্সবাজারে দেড় লাখ পর্যটক বেড়াতে আসে। তবে এ বছর তা ৩ লাখে পৌঁছাতে পারে বলে আশা ব্যবসায়ীদের।

কক্সটুডের পরিচালক মো. আবু তালেব বলেন, ‘ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সব রুম বুকিং হয়ে গেছে। এ বছর পর্যটকদের ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। আশা করছি ভালো ব্যবসা হবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/12/1549971190419.jpg

কক্সবাজার সি-সেইভ লাইফ গার্ড ইনচার্জ আব্দুল কুদ্দুস বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমাদের নিয়মিত লোকজনের সঙ্গে আরও ভলান্টিয়ার যোগ করা হবে। পাশাপাশি ভালোবাসা দিবসে বাড়তি সতর্কতাও রয়েছে।’

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট জোনের পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমান বার্তা২৪.কমকে জানান, সৈকতে ২৪ ঘণ্টা দৃশ্যমান নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে। তাছাড়া হোটেল-মোটেলের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য আলাদা সিভিল টিম রাখা হবে। পাশাপাশি সৈকতজুড়ে বাড়তি নিরাপত্তাও জোরদার করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন সেল) সাইফুল ইসলাম জয় বার্তা২৪.কমকে জানান, পর্যটকদের নিরাপত্তায় সৈকতে সার্বক্ষণিক ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রস্তুত থাকবে।

আপনার মতামত লিখুন :