Alexa

হ্যাকার গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার

হ্যাকার গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার

গ্রেফতারকৃত বশির উল্লাহ সরদার ও আজাহার উদ্দিন আবির (হেলমেট পরানো), ছবি: বার্তা২৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বগুড়া, বার্তা২৪.কম

সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট হ্যাকার চক্রের ব্ল্যাক ওয়েব টিমের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে বগুড়ার সাইবার পুলিশ। এই টিম গত দুই মাসে বগুড়াসহ সারাদেশে ২১টি ওয়েব সাইট হ্যাক করেছে। এছাড়া আরও তিন হাজার ৬৮৯টি ওয়েবসাইট হ্যাকের ডিফেস পেয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার ভাঙ্গা টাউন এলাকার হাফেজ আব্দুল্লাহ বাদশার ছেলে বশির উল্লাহ সরদার (২১) ও চাঁদপুর জেলার মতলব থানার নলুয়া গ্রামের কাজী নিজাম উদ্দিনের ছেলে আজাহার উদ্দিন আবির (১৯)। এরা দু’জনই পলিটেকনিক ইনসটিটিউিটের ছাত্র।

শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা বিপিএম তার কার্যালয়ে আয়োজিত প্রেসব্রিফিংয়ে জানান, সাইবার পুলিশ বগুড়ার মনিটরিং সেল অনুসন্ধান করে দেখে যে, গত ডিসেম্বর ও জানুয়ারিতে বিভিন্ন সময় দেমের সরকারি স্কুল, সরকারি ওয়েবসাই ছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট ছদ্মবেশ ধারণ করে হ্যাকিং করা হচ্ছে। হ্যাকাররা এসব প্রতিষ্ঠানের তথ্য উপাত্ত ধারণসহ গ্রুপিংয়ের মাধ্যমে একে অপরের সহায়তায় হ্যাক করে আসছে।

এরপর বগুড়ার সাইবার পুলিশের পরিদর্শক এমরান মাহমুদ তুহিনের নেতৃত্বে একটি টিম বশির সরদারকে শনাক্ত করে অভিযান শুরু করে। গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে তাকে গোপালগঞ্জ শহরের একটি ছাত্রবাস থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোরক্তি অনুযায়ী পরদিন সকালে চাঁদপুর থেকে আবিরকে গ্রেফতার করে সাইবার পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, তারা দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট ডিফেস দিয়েছে এবং তারা ব্ল্যাকওয়েব টিমের সদস্য।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/23/1550918499683.jpg

পুলিশ সুপার জানান, গ্রেফতারকৃত হ্যাকারদের প্রধান লক্ষ্য সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটগুলোর ক্ষতি সাধন করা, ডিফেস দিয়ে নিজেদেরকে জাহির করা এবং গোপনে এসব ওয়েব সাইটের ডাটাবেজ থেকে তথ্য চুরি করা। তাদের কম্পিউটার থেকে ৩৬ গিগাবাইটের একটি ফাইল উদ্ধার করেছে সাইবার পুলিশ, যা শুধু হ্যাকিং সংক্রান্ত।

গ্রেফতারকৃতদের নামে বগুড়া সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ছাড়াও অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা এর আরও খবর