Alexa

আগাম বাঙ্গি চাষে সফল মাদারীপুরের কৃষকরা

আগাম বাঙ্গি চাষে সফল মাদারীপুরের কৃষকরা

ছবি: বার্তা২৪.কম

মাদারীপুরের রাজৈরে আগাম বাঙ্গি চাষে সফল হয়েছেন কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ উপজলোর বাজিতপুরে  আগাম বাঙ্গি চাষ করে একদিকে যেমন শত শত কৃষক সফল হচ্ছেন, অন্যদিকে বিষমুক্ত ও সুস্বাদু হওয়ায় মাদারীপুর ছাড়াও বিভিন্ন জেলায় এই এলাকার বাঙ্গির চাহিদা ও বিক্রিও বৃদ্ধি পেয়েছে।

তাই এর উপর ভিত্তি করে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে সতারকান্দি চাতাল নামক স্থানে গড়ে উঠেছে বিশাল বাঙ্গি বেচাকেনার হাট। আগাম বাঙ্গির ফলন ভাল হওয়ায় প্রতি বছর এর চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছেন অনেকেই।

জানা যায়, কোন প্রকার ঔষধ ব্যবহার ছাড়াই মাদারীপুরের রাজৈর উপজলোর গঙ্গার্বদ্দী, সুতারকান্দি ও নয়াকান্দি গ্রামে আগাম বাঙ্গি চাষ করা হয়। ফলে দেশের বিভিন্ন জেলার পাইকারি বিক্রেতারা এখান থেকে বাঙ্গি কিনে নিয়ে যায়। প্রতি বছর সফলতার মুখ দেখায় প্রতিনিয়ত বাঙ্গি চাষের দিকে ঝুঁকছেন এখানকার কৃষকরা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/04/1551721134346.jpg

সুতারকান্দি গ্রামের মোসলেম ফকির জানান, তিনি ৭ বিঘা জমিতে আগাম বাঙ্গি চাষ করেছেন। তার প্রতি বিঘা জমিতে খরচ হয়েছে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। তার বিঘা প্রতি আয় হবে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা।

নয়াকান্দির আরেকজন বাঙ্গি চাষী সিরাজ মিয়া বলেন, ‘আমি এ বছর ৩ বঘিা জমিতে আগাম বাঙ্গি চাষ করেছি। এবার বাঙ্গির ফলন ভাল হয়েছে। র্বতমানে একটু কম বাঙ্গি ছেড়া হচ্ছে । তবে  এক মাস পরে আরো বেশি বাঙ্গি ছেড়া হবে। এ বাঙ্গি বিক্রি চলবে এপ্রিল মাস র্পযন্ত’।

রাজৈরের উপ-সহকারী কৃষি র্কমর্কতা পারিতোষ চন্দ্র বোস জানান, তিনি বাঙ্গি চাষে সফলতা আনার জন্য র্সাবক্ষণিক কৃষকদেরকে সকল প্রকার পরার্মশ দান করে যাচ্ছেন।

রাজৈর উপজেলার কৃষি সম্প্রসারন র্কমর্কতা হুমায়ূন কবির জানান, রাজৈরে এ বছর ৭৫ হেক্টর জমিতে বাঙ্গির আবাদ করা হয়েছে। এর বেশীরভাগই আম গ্রাম এবং বাজিতপুর ইউনয়িনে। বাঙ্গী উৎপাদনে এবং পোকা-মাকড় দমনে কৃষকদের মাঝে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করায় কৃষকরা বিষমুক্ত বাঙ্গি উৎপাদনে সফল হয়েছে। এটি লাভজনক র্অথকারী ফসল হওয়ায় আবাদী জমি ও কৃষকের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাঙ্গি চাষে কৃষকদরেকে কৃষি বিভাগ থেকে র্সবাত্মক সহযোগিতা করা হচ্ছে।

 

আপনার মতামত লিখুন :