Barta24

বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

বগুড়ায় পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১০ টাকা বৃদ্ধি

বগুড়ায় পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১০ টাকা বৃদ্ধি
বগুড়ার রাজাবাজারের একটি পাইকারি আড়তে পেঁয়াজ বাছাই করছেন ব্যবসায়ীরা/ ছবি: বার্তা২৪.কম
গনেশ দাস
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বগুড়া
বার্তা ২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়ার হাট বাজারে হঠাৎ করে পেয়াজের দাম বেড়েছে। তাও আবার কেজি প্রতি ১০ থেকে ১২ টাকা। গত এক সপ্তাহ আগেও খুচরা বাজারে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১৮ থেকে ২০ টাকা কেজি দরে।

একই পেঁয়াজ বৃহস্পতিবার থেকে বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, হঠাৎ করে পাইকারি বাজারে আমদানি কমে যাওয়ায় দাম বেড়ে গেছে।

আর পাইকারী বাজারের ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি কমে যাওয়ায় দেশি পেঁয়াজের উপর চাপ পড়েছে। এ কারণে সাময়িক দাম বাড়লেও কয়েক দিনের মধ্যেই পেঁয়াজের দাম আবারো কমতে শুরু করবে।

শুক্রবার (৮ মার্চ) বগুড়া শহরের ফতেহ আলী বাজার, বকশী বাজার, কালিতলা হাট, খান্দার, বউ বাজার, ছাড়াও বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা যায়, দেশি পেঁয়াজ ৩০ থেকে ৩২ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ১৬ থেকে ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

গত এক সপ্তাহ আগেও এসব হাটবাজারে দেশি পেঁয়াজ ১৮ থেকে ২০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ১২ থেকে ১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/09/1552086661206.jpg

বগুড়া শহরের কাঁচা মালামালের পাইকারী আড়ৎ রাজাবাজারের ব্যবসায়ী রাজীব বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি কমে গেছে। রাজাবাজার আড়তে এক সপ্তাহ আগেও প্রতিদিন কমপক্ষে ১০ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি হতো। সেখানে এখন দুই থেকে তিন ট্রাক পেঁয়াজ আসছে।’

তিনি বলেন, ‘ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে বন্যা ও ঝড়বৃষ্টির কারণে সেখানেই পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে। এ কারণে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ আমদানি কমিয়ে দিয়েছে।’ রাজাবাজারে কৃঞ্চ ভাণ্ডারের ব্যবসায়ী ফজের আলী বলেন, ‘একদিকে ভারতীয় পেঁয়াজের আমদানি কম, অন্যদিকে গত কয়েক দিনে অসময়ের বৃষ্টিতে পাবনা অঞ্চলে পেঁয়াজের জমিতে পানি আটকে যায়। এ কারণে জমি থেকে পেঁয়াজ উঠাতে দেরি হচ্ছে।’

শুক্রবার পেঁয়াজের পাইকারি বাজার ঘুরে দেখা যায়, দেশি পেঁয়াজ পাইকারি ২৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর ভারতীয় পেঁয়াজের আমদানি কম থাকলেও চাহিদা না থাকায় দাম বাড়েনি।

তবে ভারতীয় বীজে চাষ করা মেহেরপুরের পেয়াঁজ বলে পরিচিত লাল রং এর পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে আট টাকা কেজি ও খুচরা বাজারে ১৬ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

খুচরা বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা সেলিম হোসেন, আব্দুল গফুরসহ অনেকেই বলেন, প্রতি বছর এই সময় দেশি পেঁয়াজ ১৫ থেকে ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। এবারও তাই ছিল। কিন্তু হঠাৎ কেজি প্রতি ১০ টাকা বেড়ে যাওয়ার কারণ তারা খুঁজে পাচ্ছেন না।

পেয়াঁজ আমদানিকারকরা জানান, ভারতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় চড়া দামে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। ফলে বাংলাদেশে বিক্রি করে কেজি প্রতি দুই থেকে তিন টাকা লোকসান গুনতে হয়। এ কারণে তারা পেঁয়াজ আমদানি কমিয়ে দিয়েছেন।

গত এক সপ্তাহে হিলি স্থল বন্দর দিয়ে মাত্র ১১৮টি ভারতীয় পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এতে দুই হাজার ৩৬০ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

অপহরণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অপহরণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
আসামি জীবন। ছবি: সংগৃহীত

চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্কুলছাত্রী অপহরণ মামলায় জীবন (২৫) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া অপর আসামি ওমর ফারুককে বেকসুর খালাস দেয়া হয়।

বুধবার (২৬ জুন) দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক শওকত আলী এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিত জীবন জেলার শিবগঞ্জ পৌরসভার বাসস্ট্যান্ড মহল্লার আতাউর রহমান আতুর ছেলে।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, ২০১৪ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি শিবগঞ্জ এলাকা থেকে মাদরাসার ৯ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে আসামি জীবনসহ ৫-৬ জন মিলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে একই দিন শিবগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। ওই দিনই ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক আতিকুর রহমান আসামি জীবন ও ওমর ফারুককে অভিযুক্ত করে একই সালের ৩১ মে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আজ এ মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত জীবন পলাতক রয়েছে।

খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কে যান চলাচল বন্ধ

খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কে যান চলাচল বন্ধ
ছবি: বার্তা২৪

খাগড়াছড়ি জেলা সদরের পাহাড়ি কৃষি গবেষণার সামনে বেইলি ব্রিজের পাটতন ভেঙে খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। বুধবার (২৬ জুন) সকালে চাল বোঝাই একটি ট্রাক ব্রিজ অতিক্রম করার সময় পাটাতন ভেঙে পড়লে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

গাড়ি চালক মো. সাহাব উদ্দিন জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চাল নিয়ে যাওয়ার সময় ব্রিজের ওপর ওঠার পরই হঠাৎ করে পাটাতন ভেঙে গিয়ে আটকা পড়ে।

Khagrachari

সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগেরর উপসহকারী প্রকৌশলী রনেন চাকমা জানান, গাড়িটি যাওয়ার সময় আমি চালককে নিষেধ করেছি। কিন্তু তা না শুনে ট্রাকটি ব্রিজ দিয়ে যাওয়ার সময় পাটাতন ভেঙে যায়।

সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সবুজ চাকমা জানান, আশির দশকে তৈরি এই ব্রিজ অনেকটাই জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। এই ব্রিজের উপর পাঁচ টনের বেশি মাল নিয়ে না ওঠার নির্দেশনা থাকলেও ট্রাকের ড্রাইভার ১৩ টন মাল নিয়ে ব্রিজের ওপর ওঠার ফলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। আমাদের নতুন ব্রিজের কাজ শেষ হতে আরো এক মাসের বেশি সময় লাগবে। বাকি সময়টুকু প্রশাসনের সহযোগিতা চাই।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র