Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

রাঙামাটিতে সন্ত্রাসী হামলা

নিহত ৬ জনের ময়নাতদন্ত খাগড়াছড়িতে

নিহত ৬ জনের ময়নাতদন্ত খাগড়াছড়িতে
ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নিয়ে আসা হয়েছে, ছবি: বার্তা২৪
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
খাগড়াছড়ি
বার্তা২৪


  • Font increase
  • Font Decrease

খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী জেলার রাঙামাটি বাঘাইছড়ির নয় মাইল এলাকায় নির্বাচনী দায়িত্ব শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত প্রিজাইডিং অফিসারসহ ৭ জনের মধ্যে ৬ জনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি আধুনিক সদর হাসপাতালে আনা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ময়না তদন্ত চলছে। ময়না তদন্ত শেষে নিহতদের স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/19/1552993612586.JPG

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) দুপুরে নিহতদের লাশ আনা হয় খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতাল মর্গে । এ সময় নিহতের স্বজনদের কান্নায় ভারী হয়ে উঠে হাসপাতালের আশপাশের এলাকা। নিহতদের লাশ দেখতে হাসপাতালে ছুটে আসেন খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো: শহীদুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামানসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ সময় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সাজেক থানার আহত দুই পুলিশ সদস্য ইউনুস আহম্মেদ ও আ: আলীকে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/19/1552993625098.JPG

বাঘাইছড়ি উপজেলায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত পোলিং অফিসার আল-আমিন,মো: আমির হোসেন, গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য (বিডিপি) সদস্য বিলকিস আক্তার, আসনার সদস্য-মিহির কান্তি দত্ত,জাহানারা বেগম,গাড়ীর হেলপার মন্টু চাকমাকে খাগড়াছড়ি মর্গে আনা হয়েছে। এছাড়াও প্রিজাইডিং অফিসার আ: হান্নানের লাশ চট্টগ্রামে রয়েছে বলে জানা গেছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/19/1552993636212.JPG

আহতদের অনেকেই চট্টগ্রাম সিএমএইচ এ চিকিৎসাধীন রয়েছে। হামলার সময় তিনটি গাড়িতে প্রায় ২৪ জন দায়িত্বরত কর্মকর্তা, পুলিশ ও আনসার সদস্য ছিলেন বলে জানান আহত পুলিশ সদস্য।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/19/1552993646799.JPG

উল্লেখ্য, সোমবার (১৮মার্চ) সন্ধ্যায় বাঘাইছড়ি উপজেলার নয় কিলো এলাকায় নির্বাচনী কাজ শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের হামলায় ৭ জন নিহত হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন
ছবি: সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলায় দুই চোরাকারবারিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

আসামিদের অনুপস্থিতিতে সোমবার (১৯ আগস্ট) বিকেলের পর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহা. রবিউল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্তরা হলেন- ঢাকার কেরাণীগঞ্জের রামেরকান্দা গ্রামের মহি উদ্দিন খানের ছেলে নুরুল ইসলাম ও মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার কলুরগা গ্রামের ব্যাপারি পাড়ার নুরুল ইসলাম ব্যাপারির ছেলে মাসুদ রানা।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৭ জুন সকালে চুয়াডাঙ্গার দর্শনা জয়নগর চেকপোস্ট দিয়ে দুই জন চোরাকারবারি ভারতে স্বর্ণ পাচারের জন্য অবস্থান করছে এমন সংবাদ পেয়ে যশোর বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের একটি টিম অবস্থান নেয়। এসময় দুই চোরাকারবানি নুরুল ইসলাম ও মাসুদ রানাকে আটক করে।

পরে তাদের কাছে থাকা দুটি ট্রলি ব্যাগ তল্লাশি করে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা অবস্থায় প্রায় আড়াই কেজি স্বর্ণ আটক করে।

একই দিন যশোর বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সাজিবুল ইসলাম দুই জনকে আসামি করে দামুড়হুদা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল ইসলাম মামলার তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ৩১ জুলাই দুই জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সোমবার চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহা. রবিউল ইসলাম আসামীদের অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। পালাতক আসামিরা গ্রেফতারের পর থেকে সাজা কার্যকর হবে। আটক স্বর্ণ রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করার আদেশ দেন আদালত।

উচ্চ আদালত থেকে আসামী নুরুল ইসলাম জামিন নেওয়ার পর থেকে পালাতক রয়েছেন। আর মাসুদ রানা রায় ঘোষণার দিন অনুপস্থিত ছিলেন।

রাজবাড়ীতে বাসচাপায় নারী নিহত

রাজবাড়ীতে বাসচাপায় নারী নিহত
ছবি: প্রতীকী

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বাসচাপায় অজ্ঞাত এক নারী (৪৫) নিহত হয়েছেন।

সোমবার (১৯ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে গোয়ালন্দের ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পদ্মার মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার গোলাম রহমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, সন্ধ্যার দিকে ওই এলাকায় অজ্ঞাত এক নারীকে একটি বাস ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ আহলাদিপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র