Barta24

বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

সারাদেশে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

দেশব্যাপী শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ করছে জাতি

দেশব্যাপী শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ করছে জাতি
ছবি: বার্তা২৪
সেন্ট্রাল ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা, নৌকাবাইচসহ বিভিন্ন আয়োজনে দেশব্যাপী পালিত হচ্ছে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। দিবসের প্রথম প্রহর থেকে শুরু করে দিনব্যাপী শহীদদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন সর্বস্তরের মানুষ।

সিলেট

মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করছেন সিলেটবাসী। সর্বস্তরের জনতার পুষ্পাঞ্জলিতে ছেয়ে গেছে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদী। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ও মহানগর ইউনিটের নেতৃবৃন্দ, বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, ডিআইজি সিলেট রেঞ্জ, জেলা পরিষদ, সিলেট শিক্ষাবোর্ড, আরআরএফ কমান্ড্যান্ট, আর্মড ব্যাটালিয়ান পুলিশ, আনসার ভিডিপি, বন বিভাগম সিলেট চেম্বার, সিলেট প্রেসক্লাব নেতারা পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও স্মৃতিসৌধে ফুল দেওয়া হয়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553603369274.jpg

জেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্টেডিয়ামে পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ ও শারীরিক কসরত প্রদর্শন করা হয়। এতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সবক’টি ইউনিট ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। এছাড়া নগরীতে সাইকেল র‌্যালি বের করে সিলেট সাইক্লিং কমিউনিটি।

দুপুরে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এছাড়া দিনব্যাপী রক্তদান কর্মসূচি, আলোচনা সভা, প্রার্থনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়।

গোপালগঞ্জ

স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কয়েকজন নেতা। দুপুরে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করে।

এ সময় আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কেন্দ্রীয় নেতা এস এম কামাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলি খান, টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সরদার, সহ-সভাপতি সোলায়মান বিশ্বাসসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553604608603.jpg

এর আগে রাত ১২ টা ১ মিনিটে স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহরে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে স্বাধীনতা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাঈদুর রহমান খান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিন সহ সর্বস্তরের মানুষ ফুল দেয়।

ময়মনসিংহ

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ময়মনসিংহে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ। এরপর একে একে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ময়মনসিংহের ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার নিরঞ্জন দেবনাথ, রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন, সিটি করপোরেশনের প্রশাসক মো. ইকরামুল হক টিটু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553610114266.jpg

সকাল ৮টায় নগরীর রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে একযোগে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। পরে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে স্বাধীনতা দিবসের কুচকাওয়াজের উদ্বোধন করা হয়। শারীরিক কসরত প্রদর্শন করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

ফরিদপুর

দিবসের প্রথম প্রহরে ফরিদপুরে শহীদদের গণকবরে মোমবাতি জ্বালিয়ে তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে একত্রিশ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিনের সূচনা হয়। সকাল ৭টায় শহরের গোয়ালচামটে শহীদ স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া, পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা পরিষদ, ফরিদপুর পৌরসভা, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জেলা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553603452356.jpg

পরে সেখান থেকে থেকে স্বাধীনতা র‌্যালি বের করা হয়। এর আগে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় এক মিনিট নীরবতা পালন ও দোয়া করা হয়। এই এসব কর্মসূচি ফরিদপুরের আটটি উপজেলায় পালন করা হয়।

নড়াইল

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সরকারি আনুষ্ঠানিকতার পাশাপাশি নড়াইলে প্রায় এক হাজার রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ প্রদান করা হয়। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) সকাল ৮টা থেকে বরাশুলা শিুশুসদন কমপ্লেক্স চত্বরে বরাশুলা একতা যুব সংঘ এই কর্মসূচির আয়োজন করে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553603469065.jpg

এছাড়া বিকালে শতাধিক শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে বই ও খাতা বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সদর উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু। বরাশুলা একতা যুবসংঘের সভাপতি রায়হান হাসানের সভাপতিত্বে এ সময় আরও বক্তব্য দেন মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম খান, মাওলানা ইউসুফ আলী, ব্যবসায়ী রেজাউল আলম, আঞ্জুমনোয়ারা প্রমুখ।

যশোর

যশোরের অন্য সব উপজেলার মতোই বেনাপোলে আয়োজন করা হয় দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা। এছাড়া শার্শায় মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বীরশ্রেষ্ঠ শেখ নূর মোহাম্মদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও সশস্ত্র সালাম প্রদান করা হয়।

সশস্ত্র সালাম প্রদান করেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ৪৯ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সেলিম রেজা। শার্শা উপজেলা ষ্টেডিয়ামে বীর শহীদদের স্বরণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, নীরবতা পালন, ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মনজু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পাবনা

মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয় পাবনার সর্বত্র। দিবসের শুরুতে জেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, পুলিশ প্রশাসন, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা মেডিকেল কলেজ, স্বাধীনতা দিবস বিজয় উযাপন পরিষদ, জেলা পরিষদ, প্রেসক্লাব, গণশিল্পী, পাবনা থিয়েটার ৭৭, ইউনিভার্সাল গ্রুপ, পাবনা কলেজ, টেবুনিয়া শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক পরিষদ, রোটারী ক্লাব অব রূপকথাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন স্বাধীনতার স্মৃতিস্তম্ভ ‘দুর্জয় পাবনা’তে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/26/1553603501650.jpg

এছাড়া, আলোচনা সভা, পতাকা উত্তোলন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা এবং হাসপাতাল, জেলখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, সিরাজগঞ্জসহ দেশের সব জেলা ও উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয় ৪৯তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।  

আপনার মতামত লিখুন :

ঠাকুরগাঁওয়ে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে আহত ফুফুর মৃত্যু

ঠাকুরগাঁওয়ে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে আহত ফুফুর মৃত্যু
নিহত তানজিনা, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থার ছবি

ঠাকুরগাঁওয়ে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় ভাতিজা জীবনের ছুরিকাঘাতে আহত ফুফু তানজিনা আক্তার (২০) মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তানজিনা।

নিহত তানজিনা শহরের গ্রামীণ চক্ষু হাসপাতালের নার্স ও সালন্দর ইউনিয়নের মাদ্রাসাপাড়ার হামিদ আলীর মেয়ে।

গত ২০ জুন সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে কর্মস্থলে যাবার পথে তানজিনাকে পিছন থেকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি কোপায় তার ভাতিজা জীবন। স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে পর দিন ২১ জুন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করা হয় তাকে।

তানজিনার বাবা হামিদ আলী অভিযোগ করে বলেন, জীবন প্রতিদিন এলাকার বিভিন্ন মেয়েদের উক্ত্যক্ত করত। ভুক্তভোগী স্কুলগামী ছাত্রীরা আমার মেয়েকে অভিযোগ দেয়। এরপর আমার মেয়ে জীবনকে শাসন করে। এরই জের ধরে জীবন আমার মেয়েকে ছুরিকাঘাত করে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশিকুর রহমান বলেন, ঘটনার দিনে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত জীবনকে আটক করা হয়েছে।

রিফাতের মরদেহ বাড়িতে

রিফাতের মরদেহ বাড়িতে
ছবি: বার্তা২৪

প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে হত্যার শিকার রিফাত শরীফের মরদেহ বাড়িতে পৌঁছেছে। বিকালে বরগুনার সদর উপজেলার ৬ নম্বর বুড়িরচর ইউনিয়নে নিজ বাড়িতে মরদেহ পৌঁছায়।

স্থানীয় মসজিদে বিকাল ৫টায় তার জানাজা হওয়ার কথা রয়েছে। তার মরদেহ দেখতে বাড়িতে মানুষের ঢল নেমেছে। কান্নার রোল পড়েছে পুরো এলাকায়।

গত বুধবার (২৬ জুন) দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। দুর্বৃত্তদের ঠেকিয়ে তাকে বাঁচাতে আপ্রাণ চেষ্টা করেন তার স্ত্রী। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। তাকে কুপিয়ে হত্যার দৃশ্য সিসিটিভির ফুটেজে পাওয়া যায়। পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়ে যায়। দেশব্যাপী আলোড়ন তৈরি হয়।

রিফাতের স্বজনরা জানান, দুই মাস আগে রিফাত শরীফের সঙ্গে মিন্নির বিয়ে হয়। পরে মিন্নিকে নিজের স্ত্রী বলে দাবি করে বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি এলাকার আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন। এ নিয়ে রিফাত ও নয়নের মধ্যে একাধিকবার ঝগড়া হয়। পরে মিন্নির ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বেশ কিছু ছবি দিয়ে অপত্তিকর পোস্ট দেয় নয়ন। এ নিয়ে রিফাতের সঙ্গে তুমুল ঝগড়া হয় নয়নের।

বুধবার দুপুরে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাতকে নয়ন ও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে কোপায়। এ সময় সাথে থাকা মিন্নি তাকে স্বামীকে রক্ষার চেষ্টা করেন। পরে স্থানীয়রা রিফাতকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রিফাত।

আরও পড়ুন: বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলায় গ্রেফতার ১

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র