ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের অবহেলায় প্রাণ দিতে হলো সুমনকে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেনাপোল (যশোর), বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে কালভার্টের গর্তে পড়ে মোস্তফা মাহমুদ সুমন (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী মারা গেছেন। মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে বিএসআরএম কোম্পানির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি যশোরের শার্শা উপজেলার নাভরণ বুরুজবাগান গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। তিনি বেসরকারি একটি কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগে চাকরি করতেন।

বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. এহসান বার্তা২৪.কমকে জানান, রাতে সুমন বেনাপোল বাজার থেকে কাজ শেষে মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। এ সময় গর্তের পাশে পুতে রাখা বাঁশে ধাক্কা খেয়ে গর্তের মধ্যে পড়ে গুরুতর জখম হন তিনি। স্থানীয়দের মাধ্যমে এই খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ঠিকাদারের অসাবধানতার কারণেই সুমনকে জীবন দিতে হলো। কয়েকদিন হলো কালভার্ট বসানোর জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মোজাহার কোম্পানি রাস্তাটি কেটে গর্ত করে ফেলে রেখে যায়। এটি একটি ব্যস্ততম মহাসড়ক হওয়া সত্ত্বেও প্রতিষ্ঠানটি পথচারীদের সতর্কতার জন্য সেখানে কোনো সাইনবোর্ড বা আলোর ব্যবস্থা করেনি।

আপনার মতামত লিখুন :