Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী হয়রানি

সংবাদের সত্যতা প্রমাণে সাংবাদিকদের তলব তদন্ত কমিটির!

সংবাদের সত্যতা প্রমাণে সাংবাদিকদের তলব তদন্ত কমিটির!
শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী হয়রানির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির মুখোমুখি নাটোরের চার সাংবাদিক/ ছবি: বার্তা২৪.কম
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
নাটোর
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

নাটোরের নবাব সিরাজ-উদ্-দৌলা সরকারি কলেজের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান কর্তৃক এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়েছেন নাটোরের চার সাংবাদিক। কলেজ প্রশাসন কর্তৃক প্রকাশিত সংবাদ প্রমাণে তথ্য ও প্রমাণ প্রদানের আহ্বানের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন স্থানীয় সাংবাদিকরা। 

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বেলা ১২টায় নাটোর নিউজ পেপার রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোর-এর প্রতিনিধি নাসিম উদ্দীনের নেতৃত্বে একুশে টেলিভশন ও দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি নবীউর রহমান পিপলু, সময় টেলিভিশন ও আমাদের সময়ের প্রতিনিধি আল মামুন ও নিউজপেপার রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও বার্তা২৪.কম-এর প্রতিনিধি নাইমুর রহমান হাজির হন তদন্ত কমিটির বৈঠকে।

এ সময় আরও উপস্থিত হন নাটোর প্রেসক্লাবের সভাপতি জালাল উদ্দীন ও সদস্য ফারাজী আহমেদ রফিক বাবন।
বৈঠকে সাংবাদিক নাসিম উদ্দীন বলেন, ‘প্রতিবেদনের সত্যতা প্রমাণে উচ্চ আদালত নির্দেশ দিলে তথ্য প্রমাণাদি নিয়ে হাজির হওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। অথচ কলেজ কর্তৃপক্ষ এভাবে তথ্য-প্রমাণ চাওয়ার ধৃষ্টতা দেখিয়েছে, যা নজিরবিহীন।’

জবাবে কলেজের উপাধ্যক্ষ ও তদন্ত কমিটির প্রধান আব্দুল মোত্তালেব সংবাদের প্রমাণাদি চাওয়াটা দুঃখজনক মন্তব্য করেন।

সংবাদ মিথ্যা প্রমাণে ছাত্রীদের স্বাক্ষর আদায়ের প্রসঙ্গ তোলা হলে আব্দুল মোত্তালেব বলেন, ‘ব্যবহারিক পরীক্ষার খাতা স্বাক্ষরের জন্য ছাত্রীদের নিকট থেকে স্বাক্ষর নেন উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জেবুন্নেসা।‘

সাংবাদিকরা এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক কাজী ইসমাইলের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চান। তবে এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি কোন মন্তব্য করেনি।

এ সময় তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক সদস্য অধ্যাপক গোলাম মওলা খান, ড. কলিম উল্লাহ, রবিউল ইসলাম, কিশোর কুমার মহন্ত, জান্নাতুল ফেরদৌস ও হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এম এ তৌফিক উপস্থিত ছিলেন। 

সভা শেষে আব্দুল মোত্তালেব সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন ও দায়ী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই সাংবাদিকদের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। এ নিয়ে যদি কোনো সাংবাদিক ক্ষুণ্ন হন, তবে আমরা ক্ষমাপ্রার্থী।’

উল্লেখ্য, গত ১৩ এপ্রিল নাটোরের নবাব সিরাজ-উদ্-দৌলা সরকারি কলেজের শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে বার্তা২৪.কম। এরই প্রেক্ষিতে স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে কলেজ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়ার পর তদন্ত কমিটি করে কলেজ প্রশাসন।

আপনার মতামত লিখুন :

কুষ্টিয়ায় পদ্মায় বাড়ছে পানি, ভাঙনের আতঙ্ক

কুষ্টিয়ায় পদ্মায় বাড়ছে পানি, ভাঙনের আতঙ্ক
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদীর পানি বাড়ছে। এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নদীভাঙনের আতঙ্ক। পরিস্থিতি সামাল দিতে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) জরুরিভিত্তিতে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় পদ্মা নদীর তীরবর্তী তালবাড়িয়া ইউনিয়নের আটটি গ্রাম ভাঙনের হুমকিতে আছে। গ্রামগুলোর স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, সড়কসহ কোনো কিছু রক্ষায় কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

Padma River

তালবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান মন্ডল জানান, পদ্মার নদীতে পানি বাড়ার ফলে তালবাড়িয়া ঘাট সীমান্ত অতিক্রম করে পানি বাড়তে বাড়তে বালুচরসহ অনেক আবাদি জমি গ্রাস করেছে। দ্রুত প্রতিরক্ষার দাবি জানাই আমি।

কুষ্টিয়া পাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী পীযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু বলেন, নদী ভাঙনরোধে আমরা জরুরিভিত্তিতে অস্থায়ী প্রতিরক্ষা কার্যক্রম হাতে নিয়েছি।

Padma River

এদিকে ভাঙনের আতঙ্ক থাকায় শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন সরেজমিন পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, পদ্মা-গড়াইয়ের বন্যা ও সম্ভাব্য ভাঙনসহ বিপর্যয় মোকাবিলায় পাউবো’র সঙ্গে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। যেকোনো মূল্যে সম্ভাব্য বিপর্যয় থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য-সহযোগিতার প্রাথমিক প্রস্তুতিও রয়েছে।

নেত্রকোনায় ট্রাকচাপায় যুবক নিহত

নেত্রকোনায় ট্রাকচাপায় যুবক নিহত
সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত যুবক, ছবি: বার্তা২৪

ভাতিজাকে স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্ডেন স্কুলে পৌঁছে দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ট্রাকচাপায় শমীম মিয়া (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

শনিবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি মহাসড়কের রাজার বাজার নামক এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত শামীম পূর্বধলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের ছোট ইলাশপুর গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে।

খবর পেয়ে পূর্বধলা থানা পুলিশ ট্রাকটি আটক করেছে। চালক পালিয়ে গেলেও স্থানীয়রা ট্রাকটির এক হেল্পপারকে ধরে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার সকালে শামীম তার ভাতিজাকে স্থানীয় কিন্ডারগার্ডেন স্কুলে পৌঁছে দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে জারিয়াগামী একটি ট্রাক শামীমকে চাপা দেয় ও নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে
রাস্তার পাশে উল্টে পড়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত শামীমকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি- তদন্ত) মিজানুর রহমান মিজান জানান, ট্রাক ও এর এক হেল্পারকে আটক করা হয়েছে। চালক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র