Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে জাতিসংঘের শীর্ষ কর্মকর্তারা

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে জাতিসংঘের শীর্ষ কর্মকর্তারা
রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে জাতিসংঘের শীর্ষ কর্মকর্তারা। ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট কক্সবাজার বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

রোহিঙ্গাদের সার্বিক পরিস্থিতি দেখতে কক্সবাজারে পৌঁছেছে জাতিসংঘের শীর্ষ কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে প্রায় ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) বিকেল ৩টার দিকে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছায় তারা।

ওই প্রতিনিধি দলে রয়েছেন- জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনার ফিলিপ্পো গ্রান্ডি, জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল (হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স) মার্ক লোকক ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) মহাপরিচালক এন্তোনিও ভিতোরিনোসহ ২০ সদস্য।

বিকেলেই জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে প্রতিনিধি দলটি। এরপর তারা ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালামের সঙ্গে বৈঠক করবেন। আগামীকাল শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন। সেখান থেকে ফিরে প্রেস ব্রিফিং করার কথা রয়েছে।

এর আগে বুধবার ঢাকায় পৌঁছে জাতিসংঘের প্রতিনিধি দলটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। জাতীয় সংসদ ভবনস্থ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তারা এ সাক্ষাৎ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রত্যাবাসন ঘিরে রোহিঙ্গা শিবিরে রাখাইন ভাষায় লিফলেট বিতরণ

প্রত্যাবাসন ঘিরে রোহিঙ্গা শিবিরে রাখাইন ভাষায় লিফলেট বিতরণ
প্রত্যাবাসন ঘিরে রোহিঙ্গা শিবিরে রাখাইন ভাষায় লিফলেট বিতরণ

প্রত্যাবাসনকে ঘিরে রোহিঙ্গা শিবিরে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে সরকার ও এনজিও সংস্থার লোকজনের দফায় দফায় বৈঠক চলছে। বৈঠকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রত্যাবাসন নিয়ে গুজব ও অপপ্রচার রোধে রোহিঙ্গাদের চেয়ারম্যান, টিম লিডার, হেড মাঝি, বল্ক মাঝি, মাস্টার, ইমাম, মুরব্বি ও রোহিঙ্গা নারীসহ বিভিন্ন এনজিও সংস্থার লোকজন উপস্থিত রয়েছেন।

এ বৈঠকে কোনও রোহিঙ্গাকে জোর করে মিয়ানমারে পাঠানো হবে না বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুর থেকে টেকনাফের জাদিমুরা শালবন রোহিঙ্গা শিবিরের বিভিন্ন ব্লকে বৈঠক চলছে।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন হলে সেদেশে কি পরিস্থিতি হবে তা নিয়ে টেকনাফের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে রাখাইন ভাষায় লেখা লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। এই লিফলেটের উপরে মিয়ানমারের সরকারের মনোগ্রাম দেখা গেছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/19/1566215116708.jpg

গত রোববার (১৮ আগস্ট) বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত টেকনাফের জাদিমুরা শালবন রোহিঙ্গা শিবিরে একটি গাড়িতে করে কিছু লোকজন এ সব লিফলেট বিতরণ করছেন। এছাড়া নায়পাড়া ও লেদা রোহিঙ্গা শিবিরেও লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এই লিফলেটে চিত্রাঙ্কনের মাধ্যমে মিয়ানমারে ফিরে গিয়ে, সেখানে রোহিঙ্গাদের জীবন-যাপন কেমন হবে তা তুলে ধরা হয়েছে।

তবে এই নিয়ে রোহিঙ্গারা ভিন্নমত পোষণ করেছেন। কিছু রোহিঙ্গা বলছেন, মিয়ানমারে ফিরে যেতে উদ্বুদ্ধ করতে এসব করা হচ্ছে।

এদিকে মিয়ানমারের ভাষায় লিফলেট পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন টেকনাফের শালবন রোহিঙ্গা শিবিরের নেতা বজলুল ইসলাম।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/19/1566215129837.jpg

তিনি এই লিফলেটের বিবরণ দিয়ে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, মূলত ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ডকে (এনভিসি) গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে সেখানে। যেসব রোহিঙ্গা মিয়ানমারে ফিরে যাবেন, তাদের প্রথমে এনভিসি কার্ড দেওয়া হবে। তারপর এই কার্ড নিয়ে তাদের দেশীয় নাগরিকত্বের জন্য সরকারের কাছে আবেদন করতে হবে। এনভিসি কার্ডের মেয়াদ থাকবে দুই বছর। এর ভেতরে আবেদন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, যেসব মানুষ সড়কপথে ঘুমধুম দিয়ে ফিরে যাবে তারা সেদেশের তম্বুব্রু এবং যারা নদী পথে টেকনাফের কেরুণতলী ঘাট দিয়ে ফিরে যাবে তাদের গজবিল লম্বা হালি নামক এলাকায় এক-দুই দিন থাকতে হবে। এরপর সেখান থেকে তাদের মংডু এলাকার আইডিপি ক্যাম্পে রাখা হবে দুই মাস।

নাম না বলার শর্তে এক রোহিঙ্গা নেতা বলেন, শিবিরে কাজ করছে এমন একটি এনজিও সংস্থার কর্মীরা গাড়িতে করে এসে মিয়ানমারের ভাষায় লেখা লিফলেট বিতরণ করছেন।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নাট্যকার এম এ মজিদ রমেকে ভর্তি

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নাট্যকার এম এ মজিদ রমেকে ভর্তি
রংপুরের জনপ্রিয় নাট্যকার এম এ মজিদ, ছবি: সংগৃহীত

রংপুরের জনপ্রিয় নাট্যকার, অভিনেতা ও নির্মাতা এম এ মজিদ গত শনিবার (১৭ আগস্ট) রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণের জন্য হাসপাতালের সিসিইউ-তে রাখা হয়েছে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা আগের তুলনায় অনেকটাই উন্নতি হয়েছে।

সৃজনশীল প্রতিভার অধিকারী এম এ মজিদের অসুস্থতার খবর পেয়ে তাকে হাসপাতালে দেখতে যান রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান কাজী মোঃ জুননুন, নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাবুবার রহমান মঞ্জু, নাট্যব্যক্তিত্ব রাজ্জাক মুরাদ, সাংবাদিক ও সংগঠক মেরিনা লাভলী, রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আব্দুল হালিম আনছারী, সাধারণ সম্পাদক শাহ্ বায়েজীদ আহম্মেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোজাফ্ফর হোসেন, সাংবাদিক ইউনিয়নের সেক্রেটারি সরকার মাজহারুল মান্নান, প্রতিদিনের বার্তার নির্বাহী সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম বাবলা, প্রথম খবরের বার্তা সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সম্রাট, বাংলার চোখের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান তানবীর হোসেন আশরাফীসহ বিভিন্ন মিডিয়ার সংবাদকর্মী, সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তা ও বেতার নাট্যশিল্পীরা।

বর্তমানে এম এ মজিদের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এদিকে পরিবারের পক্ষ থেকে তার বড় ছেলে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট (রংপুর) ফরহাদুজ্জামান ফারুক তার পিতার সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

উল্লেখ্য, 'হামার রংপুর' খ্যাত ভাওয়াইয়া গানের মিউজিক ভিডিও এবং নাটকসহ অন্তত ৭০টি ভিডিও প্রকাশনায় তিনি অভিনয়ের পাশাপাশি চিত্রনাট্য পরিচালনা করেছেন। তিনি দীর্ঘ ৩৭ বছর মঞ্চ নাটকে কমেডি চরিত্রসহ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছেন। বাংলাদেশ বেতার রংপুর কেন্দ্রেও নাট্যকার ও শিল্পী হিসেবে তিনি সমাদৃত। রংপুর নাট্যচক্র, রংপুর নাট্যকেন্দ্র, মুক্তাঙ্গন সাংস্কৃতিক সামাজিক সংগঠনসহ বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি রংপুর সিটি করপোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে কর্মরত রয়েছেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র