Alexa

মাদরাসা থেকে পানি নেয়ায় মা-মেয়েসহ ৪জনকে পেটালেন শিক্ষকরা

মাদরাসা থেকে পানি নেয়ায় মা-মেয়েসহ ৪জনকে পেটালেন শিক্ষকরা

আহত নারী, ছবি: সংগৃহীত

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় মাদরাসার টিউবওয়েল থেকে পানি নেওয়ার অভিযোগে মা-মেয়ে’সহ ৪ জনকে পেটালেন মাদরাসার শিক্ষকরা। এ ঘটনায় আলীকদম থানায় ৫ জন শিক্ষক’সহ অজ্ঞাত আরও চারজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) এই ঘটনা ঘটলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনার ভিডিও চিত্র ছড়িয়ে পড়লে পরে সেটা জানাজানি হয় এলাকায়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জেলার আলীকদম উপজেলার সদর ইউনিয়নের আলীকদম ফয়জুল উলুম মাদরাসা ও এতিমখানার টিউবওয়েল থেকে খাবার পানি আনতে (সংগ্রহ) যান দানুসর্দার পাড়ার বাসিন্দার কিশোর মোহাম্মদ আলম। কিন্তু শিক্ষকরা বাধা দেয়ার পরও পানি নেয়ার চেষ্টা করলেও মাদরাসার সুপার শামসুল হুদা’সহ কয়েকজন শিক্ষক ঝাড়ু দিয়ে পিটিয়ে কিশোরকে মাদরাসা থেকে বের করে দেন। 

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/26/1556274994183.jpg
আহত সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী, ছবি: সংগৃহীত

 

খবর পেয়ে কিশোরের মা-বোন এবং ছোট ভাই ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এ সময় শিক্ষকরা কিশোরের মা সালমা বেগম (৩৫), ছোট বোন রহিমা জান্নাত রুনা এবং ছোটভাই মোহাম্মদ রফিক (১৬) মারধর করেন।

মাথার চুলের ঝুটি ধরে গলা ধাক্কা মেরে মেরে মাদরাসা এলাকা থেকে বের করে দেন। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় দুই নারীকে আলীকদম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। ঘটনাটি গোপনে মোবাইলে ধারণ করে স্থানীয়দের কেউ কেউ। ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠে।

আহত মোহাম্মদ আলম বলেন, ‘মাদরাসার টিউবওয়েল থেকে পার্শ্ববর্তী সবাই খাবার পানি সংগ্রহ করেন। গত মঙ্গলবার সকালে পানি আনতে গেলে মাদরাসার সুপার শামসুল হুদা আমাকে ঝাড়ু নিয়ে পিটিয়ে মাদরাসা থেকে বের করে দেন। বিষয়টি জানতে আমার ছোট ভাই ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও মারধর করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাকে মারধরের খবর পেয়ে কিছুক্ষণ পর আমার মা এবং ছোটবোন ঘটনাস্থলে গেলে শিক্ষকরা আমার মা’কেও মারধর করেন। টয়লেটের দেয়ালের সঙ্গে ধাক্কা মেরে গুরুতর আহত করে। আমার ছোটবোন সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী, সেও মারের হাত থেকে রেহাই পায়নি। তার শরীরে শিক্ষকদের নখের চিহ্ন রয়েছে।’

এদিকে, এই বিষয়ে জানতে মাদরাসার সুপার’সহ কয়েকজন শিক্ষকের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

তবে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আলীকদম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিক উল্লাহ জানান, মাদরাসার টিউবওয়েল থেকে পানি নেওয়া’কে কেন্দ্র করে এই জঘন্য ঘটনাটি ঘটেছে। গত বুধবার থানায় এজাহার নামীয় ৫ জন’সহ অজ্ঞাত আরও ৪জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

 

 

আপনার মতামত লিখুন :