Alexa

চালান পত্র ছিঁড়ে টাকা আত্মসাৎ দিনাজপুর আয়কর বিভাগের

চালান পত্র ছিঁড়ে টাকা আত্মসাৎ দিনাজপুর আয়কর বিভাগের

ছবি: বার্তা২৪.কম

দিনাজপুরের করদাতাদের কাছ থেকে আদায়কৃত টাকা সরকারি কোষাগারে জমা না দিয়ে অন্য ব্যক্তিগত হিসাব ব্যবহার করে সরকারের বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করে নিয়েছে একটি চক্র এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট এলাকায় অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রোববার (২৮ এপ্রিল) দিনাজপুরের দুদকের একটি এনফোর্সমেন্ট টিম দিনাজপুর আয়কর বিভাগে এ অভিযান চালায়। 

দুদক জানায়, নিয়মানুযায়ী আয়কর বিভাগ থেকে প্রাপ্ত টাকা চালান বা পে-অর্ডারের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, দিনাজপুর করপোরেট শাখার ট্রেজারির হিসাব কোডে জমা হওয়ার কথা। কিন্তু তা না হয়ে পে-অর্ডারগুলো ব্যাংকে জমা হওয়ার পর চালানগুলো ছিঁড়ে ফেলে এবং পে-অর্ডারগুলোর পেছনে ঘষামাজা করে একটি নির্দিষ্ট বেতন ব্যক্তিগত বিলের হিসাব নম্বরে জমা দেওয়া হয়েছে। এই কাজে সোনালী ব্যাংক এবং আয়কর বিভাগের কতিপয় কর্মকর্তার যোগসাজশের প্রাথমিকভাবে ধারণা করে দুদক।

এ সময় একটিমাত্র একাউন্ট যাচাই করেই প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা অনৈতিকভাবে উত্তোলনের প্রমাণ পায় দুদক। ফলে সংস্থাটির সন্দেহ আরও কিছু হিসাব যাচাই করলে এই অর্থের পরিমাণ আরও বাড়বে যা কোটি টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এ বিষয়ে সকল তথ্যাদি সংগ্রহ করে অনুসন্ধানের সুপারিশ করে কমিশনে বিস্তারিত প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে বলে জানায় দুদক।

এদিকে নোয়াখালী পাসপোর্ট অফিসে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, নোয়াখালীর একটি টিম। অভিযানকালে দুদক দল পাসপোর্ট বিতরণ কক্ষে দালালের উপস্থিতি নিশ্চিত হয়। এ সময় একজন দালালকে স্থানীয় জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দালালকে ৭ দিনের কারাদণ্ড দেয় দুদক। তবে বাকিরা দুদক টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

আপনার মতামত লিখুন :