Alexa

প্রেমঘটিত কারণে চুয়াডাঙ্গায় কিশোরকে গলা কেটে হত্যা

প্রেমঘটিত কারণে চুয়াডাঙ্গায় কিশোরকে গলা কেটে হত্যা

হত্যার সাথে যুক্ত থাকা কিশোর, ছবি: বার্তা২৪.কম

চুয়াডাঙ্গায় প্রেমঘটিত কারণে মোমিন (১৫) নামের এক কিশোরকে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার (৩ মে) রাতে সদর উপজেলার আলুকদিয়ার গাংপাড়ায় মাথাভাঙ্গা নদী থেকে মোমিনের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মোমিন আলুকদিয়া বাজারপাড়ার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে নিহত কিশোরকে বন্ধু সাফায়েতকে (১৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, বর্ষা নামের এক মেয়ে সাথে সাফায়েতের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তাদের সম্পর্ক ভেঙে গেলে বর্ষার সাথে মোমিনের বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি হয়। ফলে মোমিনের সঙ্গে সাফায়েতের শত্রুতা বাধে। এরই মাঝে গত বৃহস্পতিবার (২ মে) সাফায়েত মাথাভাঙ্গা নদীর পাশে মোমিনকে গলা কেটে হত্যা করে পানিতে ফেলে দেয়।

রাতে মোমিন বাসায় না ফিরলে পরিবারের লোকজন তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করে। শুক্রবার রাতে মোমিনের লাশ নদীতে ভেসে দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মোমিনের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান ঘটনার তথ্য নিশ্চিত করে জানান, হত্যাকাণ্ডে জড়িত সাফায়েতকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :