Alexa

শার্শায় অজ্ঞাত লাশের পরিচয় মিলেছে

শার্শায় অজ্ঞাত লাশের পরিচয় মিলেছে

পরিবারের আহাজারি, ছবি: বার্তা২৪

যশোরের শার্শা সীমান্ত থেকে রোববার (৫ মে) সকালে উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত লাশের পরিচয় সনাক্ত করা হয়েছে।

তিনি বেনাপোল পোর্টথানার পাটবাড়ি গ্রামের জাফর হোসেনের ছেলে মুদি দোকান ব্যবসায়ী আব্দুস ছালাম (৩৫)। গতকাল রাতে দোকান থেকে বের হয়ে ঔষধ কিনতে গিয়েছিলেন। এরপর থেকেই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

রোববার সকাল ৯টায় শার্শার আমড়াখালী ব্রিজের নিচের খাল থেকে ভাসমান অবস্থায় শার্শা থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন: শার্শায় অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের মরদেহ উদ্ধার

নিহতের পিতা জানান, গতকাল সন্ধ্যায় ছালাম তার ছেলেকে দোকানে বসিয়ে রেখে ঔষধ কিনতে বাজারে যায়। যাওয়ার আগে ছেলেকে জানিয়ে যায় সে বাইরে যাচ্ছে কাউকে যেন কিছু না বলে। এরপর রাত ৯টায় তাকে ফোন করলে ১০ মিনিটের মধ্যে বাড়িতে আসার কথা বলে। পরে তার সঙ্গে আবারও যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে মোবাইল সংযোগ বন্ধ পাওয়া যায়। রাতভর অনেক জায়গায় খোঁজাখুঁজির পরেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। সকালে ফেসবুকে তার লাশের ছবি দেখে তারা তাকে চিনতে পারে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, ছালাম ভদ্র প্রকৃতির ছেলে। কারও সাথে তেমন কোনো শত্রুতার খবর শোনা যায়নি। তবে দোকানে তার কেরাম বোর্ডের ব্যবসা ছিল। ধারণা করা হচ্ছে খেলাকে কেন্দ্র করে কারো সাথে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছে। এতেই তিনি খুন হতে পারেন বলে ধারণা স্থানীয়দের।
শার্শা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন বার্তা২৪কে জানান, লোকমুখে খবর পেয়ে আমড়াখালী রেল ব্রিজের নিচে খাল থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :