ক্যানসারে পা হারানো সাবরিনা পেয়েছে জিপিএ ৪.৩৩

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঝালকাঠি
সাবরিনা আক্তার সেফা। ছবি: বার্তা২৪.কম

সাবরিনা আক্তার সেফা। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে পা হারানো সাবরিনা আক্তার সেফা এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ ৪.৩৩ পেয়েছে। সে বড় হয়ে কলেজ শিক্ষক হতে চায়।

সাবরিনা ঝালকাঠির নলছিটির বরইকরণ গ্রামের কৃষক আবদুল কাদেরের মেয়ে। সে এবার ঝালকাঠি সরকারি হরচন্দ্র সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়।

জানা গেছে, সাবরিনাদের পারিবারিক অবস্থা তেমন ভালো না। ২০১৬ সালে তার পায়ে ক্যানসার ধরা পড়ে। ২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ক্যানসার হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার ঊরু থেকে বাম পা কেটে ফেলা হয়। তার এই চিকিৎসায় প্রায় ২৫ লাখ টাকা খরচ হয়। যা তার বাবা জমি বিক্রিসহ সমাজের বিত্তবানদের কাছ থেকে সাহায্যের মাধ্যমে সংগ্রহ করেন।

২০১৭ সালে সাবরিনা দশম শ্রেণিতে পড়ত। তবে নানা প্রতিকূলতার মাঝেও থেমে ছিল না তার পড়াশোনা। এ বছর সে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ-৪.৩৩ পেয়েছে।

সাবরিনার বাবা আবদুল কাদের বলেন, ‘আমার মেয়ে প্রতিটা মুহূর্তে জীবনের সঙ্গে যুদ্ধ করে বেঁচে আছে। এরপরেও সে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছে। ওর রেজাল্টে আমি খুব খুশি।’

আপনার মতামত লিখুন :