Alexa

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট

ফেরির অপেক্ষায় আরেকটি রাত কাটছে ট্রাক চালকদের

ফেরির অপেক্ষায় আরেকটি রাত কাটছে ট্রাক চালকদের

পদ্মা পারের অপেক্ষায় ট্রাকের দীর্ঘ লাইন, ছবি: বার্তা২৪.কম

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে পদ্মা নদী পারের জন্য সড়কে এবং বাস টার্মিনালে তিন দিন ধরে অপেক্ষায় রয়েছে পণ্যবাহী ট্রাকের চালকরা।

ফেরির অপেক্ষায় বুধবার (৮ মে) তৃতীয়দিন পার করলেও এখনও পদ্মা পার হতে পারেনি। প্রচণ্ড তাপদাহের মধ্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় সিরিয়াল পাওয়ার আশায় থেকে এসব ট্রাক শ্রমিকের অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। রাতও কাটছে অনিশ্চয়তায়।

চালকদের কাছে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় এখন তারা আরও বেশি বিপাকে পড়েছেন। যারা তিনদিন ধরে টার্মিনালে রাত যাপন করছেন তারা এখন অর্থ শূন্য অবস্থায় মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। বাধ্য হয়েই দিনে খোলা খাবার খাচ্ছেন আর রাতে ট্রাকের মধ্যেই ঘুমাচ্ছেন।

ফেরির অপেক্ষায় আরেকটি রাত কাটছে ট্রাক চালকদের

দৌলতদিয়া বাস টার্মিনালে অপেক্ষায় থাকা ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের ট্রাক চালক মো. ইবাদত আলী বার্তা২৪.কম-কে জানান, রোববার রাত তিনটায় তিনি দৌলতদিয়ায় এসে পৌঁছালে সোমবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্তই সড়কের ওপর তার সিরিয়ালে থাকতে হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার পর ট্রাফিক পুলিশ তাকে বাস টার্মিনালে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। সেই থেকে বুধবার (৮ মে) পর্যন্ত তাকে টার্মিনালেই থাকতে হচ্ছে।

ফেরির অপেক্ষায় আরেকটি রাত কাটছে ট্রাক চালকদের

তিনি আরও বলেন, 'আমাদের কাছে যে টাকা ছিল তা প্রায় শেষ হয়ে যাচ্ছে। আজ রাতেও যদি ফেরিতে উঠতে না পারি তাহলে আমাদের না খেয়ে থাকতে হবে। যে টাকা ছিল তা দিয়ে আমি ও আমার সহকারী আজ তিনদিন হলো কোনরকম খেয়ে বেঁচে আছি। এর মধ্যে আবার গতরাতে আমার মোবাইল সেটটি এখান থেকে চুরি হয়ে গেছে। দিনে হোটেলে খায় আর রাতে এই অসহ্য গরমের মধ্যে ট্রাকের ভেতরেই ঘুমায়।'

ফেরির অপেক্ষায় আরেকটি রাত কাটছে ট্রাক চালকদের

ফেরি পার হতে একটি ট্রাককে কেন তিন থেকে চারদিন টার্মিনালে অপেক্ষা করতে হচ্ছে এমন প্রশ্ন করলে দৌলতদিয়া ঘাটের ট্রাফিক ইন্সেপেক্টর মো: মাহবুবুর রহমান বার্তা২৪.কম-কে জানান, ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাটে ট্রাকের চাপ বেড়ে যাওয়ায় কিছুটা বিঘ্ন ঘটছে। তাছাড়া কয়েকদিন হলো দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসের প্রচুর চাপ রয়েছে। আর অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাসগুলো নদী পার করার কারণে পণ্যবাহী ট্রাকগুলোকে নদী পারের জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, 'আশা করছি আজ রাতেই সব কিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে।'

আপনার মতামত লিখুন :

জেলা এর আরও খবর