Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

রমজানে মৌলভীবাজারে বাড়ছে ডাবের কদর

রমজানে মৌলভীবাজারে বাড়ছে ডাবের কদর
দোকানে ঝুলছে ডাব / ছবি: বার্তা২৪
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
মৌলভী বাজার


  • Font increase
  • Font Decrease

ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানার পরবর্তী সময় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় রোজায় গরম একটু বেশিই জানান দিচ্ছে। এ গরমে অফিস ও কাজকর্ম সেরে অনেক রোজাদার ক্লান্ত হয়ে পড়ে। তৃষ্ণা মেটাতে ইফতারে নানা ধরনের শরবত ও কোমল পানীয় পান করে। আবার অনেকে ইফতারে ডাবের পানি পান করে।

এ রমজানে মৌলভীবাজারে প্রচণ্ড তাপদাহে বিভিন্ন শরবত ও কোমল পানীয়র পাশাপাশি চাহিদা বেড়েছে ডাবের। কারণ, অন্যান্য পানীয়র তুলনায় ডাবের পানি শতভাগ নিরাপদ। তাই দুপুর থেকে ইফতারের আগ পর্যন্ত সহজলভ্য এই পানীয় কিনে নিচ্ছে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

চিকিৎসকের মতে, ডাবের পানি খুবই নিরাপদ। শরীরের জন্য অনেক উপকারী। এ পানি পান করলে আমাশয় ও জন্ডিসসহ বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/09/1557386188219.jpg

সরেজমিন দেখা যায়, শহরের ফুটপাতে, বিভিন্ন পয়েন্টে ও জনবহুল স্থানে ডাব এবং শরবত ও কোমল পানীয়র পসরা সাজিয়ে বসে আছেন বিক্রেতারা। রমজানের আগে এসব দোকানে মানুষ সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ডাবসহ লেবুর শরবত ও আখের রস খাওয়ার জন্য ভীড় করতো। কেউ কেউ বোতলে করে ডাবের পানি নিয়ে বাড়ি যাচ্ছেন।

ডাব বিক্রেতা আনোয়ার বার্তা২৪.কমকে জানান, গরমে ডাবের চাহিদা বেড়েছে তবে ডাবের উৎপাদন কম হওয়ায় গত বছরের তুলনায় এবারের দাম একটু বেশি। বড় ও মাঝারি আকারের একটি ডাব বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৬০ টাকা। তবে নিম্ন মধ্যবিত্তের চাইতে বৃত্তবান ক্রেতাদের সংখ্যাই বেশি।’

ডাব ক্রেতা মো. প্রিন্স বার্তা২৪.কমকে জানান, দাম বেশি হলেও অনেকটা নিরাপদ জেনে ডাব কিনছেন। সারাদিন রোজা রাখার পর ইফতারের সময় ডাবের পানি পান করলে শরীরের অসস্তি দূর হবে আর শরীরের জন্যও উপকারী হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/09/1557386224044.jpg

সিলেটের বিভাগীয় সাবেক স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হরিপদ রায় বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘অতিরিক্ত গরমে আমাদের শরীরে অনেক ঘাম বের হয়। তাতে পানি শূন্যতার অভাব দূর করতে পানীয় খাবার খুব জরুরি। বিশেষ করে সারাদিন যারা রোজা রাখে তাদের ক্লান্তি ও অবসাদ দূর করতে, পানিশূন্যতা প্রতিরোধ করতে ডাবের পানিসহ শরবত জাতীয় পানীয় খাবার খুব কার্যকর। ডাবের পানি শরীরের জন্য যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ।’

আপনার মতামত লিখুন :

শেরপুরে বন্যার পানিতে বৃদ্ধার মর‌দেহ

শেরপুরে বন্যার পানিতে বৃদ্ধার মর‌দেহ
প্রতীকী ছবি

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বন্যার পানিতে ডুবে আসিমা বেওয়া (১০৫) নামে এক বৃদ্ধা মারা গেছেন। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে উপজেলার সারিকালিনগর এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

আসিমা বেওয়া ওই গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিন মন্ডলের স্ত্রী।

নিহতের পরিবার জানায়, গত রোববার (১৪ জুলাই) রাত ১২টার দিকে তার মেয়ে তাকে ঘুমিয়ে রেখে নিজের ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে ঘুম থেকে উঠে মাকে না পেয়ে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও আর পাননি। বাড়ির আঙ্গিনাসহ চারপাশে বন্যার পানি ছিল। পরিবারের ধারণা- আসিয়া রাতে প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে গিয়ে বন্যার পানিতে পড়ে ভেসে গেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে বা‌ড়ির পা‌শে আসিয়ার মর‌দেহ ভাসতে দেখেন এলাকাবাসী। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থে‌কে মর‌দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বক্কর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জমি নিয়ে বিরোধ, যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

জমি নিয়ে বিরোধ, যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম
ছবি: প্রতীকী

কুষ্টিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মিজানুর রহমান বাবু (৩২) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে মিরপুর উপজেলার কেঁউপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মিজানুর রহমান বাবু মিরপুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) আব্দুল আলিম জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে কেউপুর গ্রামের মাজেদ মাস্টারের সঙ্গে মশান গ্রামের আব্দুল গফুরের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এ জেরে আজ দুপুরের দিকে গফুর ও তার ছেলে নাজমুল, সম্রাট এবং ভাতিজারা মাজেদ মাস্টারের শ্যালক মিজানুর রহমান বাবুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র