সালথায় ইজিপিপি কাজের শুরুতেই অনিয়ম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ফরিদপুর
সালথায় অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) কাজে অনিয়ম। ছবি: বার্তা২৪.কম

সালথায় অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) কাজে অনিয়ম। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ফরিদপুরের সালথায় অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির (ইজিপিপি) কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, ইজিপিপি এর আওতায় উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের বড়খারদিয়া কুমার নদী থেকে সাতগুদির বিল পর্যন্ত কাকটাখাল কৃষি কাজের উপযোগী করে পুনঃখনন করা হচ্ছে। এ প্রকল্পে ৭৩ জন অতিদরিদ্র লেবার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তবে ইউপি চেয়ারম্যান ও প্রকল্প সভাপতির যোগসাজশে অতিদরিদ্র লেবারের পরিবর্তে রোববার (৫ মে) থেকে বৃহস্পতিবার (৯ মে) পর্যন্ত ভেকু মেশিন দিয়ে কম খরচে খাল খনন করা হয়েছে। এতে সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অতিদরিদ্র লেবাররা।

এ বিষয়ে প্রকল্প সভাপতি ইউপি সদস্য তোরাপ হোসেন বলেন, ‘আমি নামে মাত্র প্রকল্প সভাপতি, সব দায়দায়িত্ব চেয়ারম্যানের।’

ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মুন্সী বলেন, ‘খাল পুনঃখননে লেবারও ছিল, ভেকু মেশিনও ছিল। এলাকার মানুষের সুবিধার্থে ভেকু মেশিন ব্যবহার করা হচ্ছে।’

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কাজী লিয়াকত হোসেন বলেন, ‘অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচির কাজে ভেকু মেশিন দিয়ে কাজ করা সম্পূর্ণ অনিয়ম। আমরা কাজের আগে মিটিংয়ে সকল চেয়ারম্যান ও প্রকল্প সভাপতিদের ভেকু মেশিন ব্যবহার না করার নির্দেশ দিয়েছিলাম। ভেকু মেশিন ব্যবহার করার জন্য প্রকল্প বন্ধ করতে জরুরিভাবে নোটিশ করা হবে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাকছুদুল ইসলাম জানান, কোনো প্রকার ভেকু মেশিন দিয়ে কর্মসূচির কাজ করা যাবে না। যেসব প্রকল্পে অনিয়ম দেখা যাবে, সেগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। এর আগে বুধবার সোনাপুর ইউনিয়নের মিনাজদিয়া প্রকল্প ও ভাওয়াল ইউনিয়নের কামদিয়া প্রকল্পে লেবার কম থাকায় কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’

আপনার মতামত লিখুন :