Alexa

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সুপেয় পানির তীব্র সংকট

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সুপেয় পানির তীব্র সংকট

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সুপেয় পানির জন্য মানুষের দীর্ঘ অপেক্ষা, ছবি: বার্তা২৪.কম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকায় সুপেয় পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। পৌর এলাকার অধিকাংশ নলকূপে পানি উঠছে না। তীব্র দাবদাহ আর পানির সংকটে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন স্থানীয়রা। 

স্থানীয়রা জানায়, এখানকার হাতে গোনা কয়েকটি নলকূপে সামান্য পানি উঠলেও বেশিরভাগ এলাকার নলকূপে পানি পাওয়া যাচ্ছে না। এতে রমজান মাসে বিপাকে পড়েছেন তারা। পৌর এলাকার বাতেন খাঁর মোড়, পিটিআই মাস্টার পাড়া,পাওয়ার হাউস মোড়,দরগা পাড়া বিডিআর কলোনির মানুষ পড়েছে চরম পানি সংকটে। আবার যেসব এলাকায় পানি উঠছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম।

স্থানীয়দের অভিযোগ, পৌরসভার লাইনে যে পানি সরবরাহ করা হয় তা অত্যন্ত নোংরা ও ময়লাযুক্ত। ফলে রমজান মাসে সাধারণ মানুষকে বাধ্য হয়ে পানি কিনে প্রয়োজন মেটাতে হচ্ছে।

পৌর এলাকার নিমতলার বাসিন্দা মনোয়ার হোসেন জুয়েল বলেন, পৌরসভার পানিতে ময়লা ও দুর্গন্ধ থাকায় তা একেবারেই ব্যবহারের অনুপযোগী। সুপেয় পানি সংগ্রহ করতে হচ্ছে প্রায় আধা কিলোমিটার দূর বাতেন খাঁর মোড়ের নলকূপ থেকে। সেখানে পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হয় দীর্ঘক্ষণ।

একই অভিযোগ করেন পিটিআই মাস্টার পাড়ার বাসিন্দা আশরাফুল ইসলাম। তিনি জানান,শুধু রমজান নয় পুরো বছর বাইরে থেকে পানি কিনে পান করতে হয়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557557128970.jpg

দরগা পাড়ার বাসিন্দা মঞ্জুর জানান,দরগা পাড়ার সবগুলো বাড়ির নলকূপে পানি উঠে না। একটিমাত্র নলকূপে পানি উঠে। ওই নলকূপ থেকে খাবার পানি সংগ্রহ করতে হয়। সেটাও আবার সব সময় পাওয়া যায় না। হাতে কলস ও বালতি নিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাড়িয়ে অপেক্ষা করতে হয়।

পৌরসভার লাইনের পানিকে ফিল্টার করার ঝামেলা বা পানি ফুটিয়ে পান করার চেয়ে বাতেন খাঁর নলকূপের পানি নিরাপদ বলে জানান হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক সৈয়দ মফিজুল ইসলাম।

জানা গেছে, পৌরসভা এলাকা সুপেয় পানি চাহিদা মেটাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে বাতেন খাঁর মোড়ে একটি নলকূপ স্থাপন করা হয় কয়েক বছর আগে । আর এ নলকূপের ওপর নির্ভর করে এখনও খাবার পানির চাহিদা মেটাচ্ছে অসংখ্য পরিবার।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/11/1557557923332.jpg

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে সর্বপ্রথম আর্সেনিক ধরা পড়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বারঘোরিয়া এলাকায়। জনস্বাস্থ্য ও প্রকৌশল অধিদফতর ১৯৯৩ সালে নবাবগঞ্জ সদর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) উপজেলার বারঘোরিয়া মৌজায় কয়েকটি নলকূপে পরীক্ষা চালিয়ে এখানকার ভূগর্ভস্থ পানিতে আর্সেনিক রয়েছে বলে ঘোষণা করে।

সরকার নানাভাবে আর্সেনিকমুক্ত পানি সরবরাহের চেষ্টা করে আসলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরে খাবার পানির সংকট দেখা যায় বছরের বেশিরভাগ সময়। বিশেষ করে গ্রীষ্মকালে সুপেয় পানির আকাল দেখা যায়।

পৌর এলাকার যে কয়েকটি নলকূপে পানি উঠে প্রতিদিন তিন-চার কিলোমিটার দূর থেকে এসে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নারী-পুরুষ ও শিক্ষার্থীরা লাইনে দাঁড়িয়ে সুপেয় পানি সংগ্রহ করে।

পানির সংকট মেটাতে পৌরসভা বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে নলকূপ স্থাপনের দাবি জানিয়েছে পৌরবাসী।

আপনার মতামত লিখুন :

জেলা এর আরও খবর