Alexa

গার্ড অব অনার ছাড়াই মুক্তিযোদ্ধাকে দাফন

গার্ড অব অনার ছাড়াই মুক্তিযোদ্ধাকে দাফন

ছবি: প্রতীকী

গার্ড অব অনার ছাড়াই মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দীনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। একাত্তরের এই অকুতোভয় বীর বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন।

শনিবার (১১ মে) বেলা ১১টায় শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তার বাড়িতে ছুটে আসেন সহযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। তবে পুলিশ সদস্যরা সময় মতো পৌঁছাতে না পারায় গার্ড অব অনার প্রদান করা যায়নি।

জানা গেছে, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দীন বার্ধক্যজনিত কারণে শনিবার ভোরে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বেলা ১১টায় নিজ গ্রামে জানাজা শেষে দাফনের উদ্যোগ নেওয়া হয়। মুক্তিযোদ্ধাদের দাফনের নীতিমালা অনুযায়ী গার্ড অব অনার প্রদান ও রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে জাতীয় পতাকা দিয়ে সম্মান জানানো হয়।

গাংনী উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মুন্তাজ আলী বলেন, ‘সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানায় মৃত্যুর বিষয়টি জানিয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশের সদস্যরা সময় মতো সেখানে উপস্থিত হয়নি। তাই প্রচণ্ড গরমে লাশ নিয়ে পুলিশের জন্য আর অপেক্ষা না করে দাফন করা হয়েছে।’

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম বলেন, ‘ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের পক্ষ থেকে মৃত্যুর বিষয়টি পুলিশে জানানো হয়নি। গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানাজা স্থলে পৌঁছে পুলিশ না পেয়ে আমাকে কল করেন। তখন আমি খবর না জানার বিষয়টি অবগত করে পুলিশ পাঠিয়েছি। কিন্তু পুলিশ পৌঁছানোর কয়েক মিনিট আগে দাফন শেষ হয়।’

গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল জানান, পুলিশের গার্ড অব অনার ছাড়া সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়।

মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক মো. আতাউল গণি জানান, মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর বিষয়টি জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়নি। তবুও বিষয়টি যেহেতু স্পর্শকাতর, তাই তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :