Alexa

আ’লীগের সংঘর্ষে রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যানসহ আসামি ৮৯

আ’লীগের সংঘর্ষে রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যানসহ আসামি ৮৯

রায়পুর থানা, ছবি: সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মাছঘাট দখল ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের সংঘর্ষ ও দোকানঘর ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এতে উপজেলার উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেনসহ ৮৯ জনকে আসামি করা হয়েছে।

রোববার (১২ মে) দুপুরে আতাউল গনি ও আলতাফ হোসেন বেপারী বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। 

জানা গেছে, মামলার বাদীরা উপজেলার উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক ওসমান খাঁনের অনুসারি। আসামিরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন হাওলাদারের অনুসারি হিসেবে পরিচিত। 

পুলিশ জানায়, উপজেলার উত্তর চরবংশীতে মেঘনা নদীর তীরের চান্দনা মাছঘাট দখল নিয়ে সংঘর্ষ, দোকানঘর ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনায় থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হোসেনসহ দুই মামলা ৮৯ জনকে আসামি করা হয়। এরমধ্যে আতাউল গণি ৪৪ ও আলতাফ হোসেন বেপারী ৪৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। 

রায়পুর থানার ডিউটি অফিসার (এসআই) সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘উত্তর চরবংশীতে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, উপজেলার উত্তর চরবংশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলতাফ হোসেন হাওলাদার ও ইউনিয়ন কমিটির বর্তমান আহ্বায়ক ওসমান খাঁনের অনুসারিদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এ দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করে। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় আলতাফ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ইউনিয়ন কমিটি বিলুপ্ত করে ওসমান খাঁনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। 

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১০ মে) রায়পুরের মেঘনা নদীর তীরের চান্দনা খালের মাছ ঘাট দখল ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের ওই দু’গ্রুপের সংঘর্ষ এবং খাসেরহাট দলের অস্থায়ী কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। এর জের ধরে পরদিন আক্তার হোসেন নামে এক যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়।  

আপনার মতামত লিখুন :