Alexa

নেত্রকোনায় সরকারি গুদামের চাল বরাদ্দ নিয়ে হাতাহাতি

নেত্রকোনায় সরকারি গুদামের চাল বরাদ্দ নিয়ে হাতাহাতি

নেত্রকোনার মানচিত্র, ছবি: সংগৃহীত

নেত্রকোনায় সরকারি খাদ্য গুদামের চাল সংগ্রহ অভিযানকে কেন্দ্র করে মিল মালিকের সঙ্গে কমিটির সভাপতির বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার (১৩ মে) বিকালে মোক্তারপাড়া খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

মিল মালিক সাবেক সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা আতাউর রহমান মানিকের সাথে জেলা চাল কল সমিতির সভাপতি এইচ আর খান পাঠান সাকির মধ্যে এ হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

তবে এ ঘটনার পরপরই খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুরাইয়া খাতুন ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন।

আতাউর রহমান মানিক অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকারি বরাদ্দের ৬০ হাজার টনের মধ্যে ২৫ ভাগ চাল সভাপতি এইচ আর খান পাঠান সাকি ও খাদ্য নিয়ন্ত্রক ভাগ করে নেয়। তাদের কাছে তালিকা চাইতেই আমার ওপর চড়াও হয়। আমার পাঞ্জাবি ছিঁড়ে ফেলে। সাকি দীর্ঘদিন ধরে লুটপাট করছে। আওয়ামী লীগের নেতা আমি। সে আমার গায়ে হাত তুলেছে।’

চাল কল সমিতির সভাপতি সাকি সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মানিক আমার ওপর চড়াও হয়। নিয়ম মতোই চাল সংগ্রহ অভিযান চলছে বলেও দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুরাইয়া খাতুনের মোবাইল ফোনে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :