Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা মানব পাচারকারী নিহত

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা মানব পাচারকারী নিহত
প্রতীকী ছবি
উপজেলা করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
টেকনাফ (কক্সবাজার)


  • Font increase
  • Font Decrease

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা মানব পাচারকারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৪ মে) ভোররাতে উপজেলার শাপলাপুর মেরিন ড্রাইভ সংলগ্ন সৈকত এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রোহিঙ্গারা হলেন- টেকনাফের বাহারছড়া শামলাপুর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আব্দুর রহিমের ছেলে আজিম উল্লাহ (২৫) ও জামতলী ক্যাম্পের মৃত রহিম আলীর ছেলে আব্দুস সালাম (৫২)।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- এএসআই জহিরুল, কনেস্টবল মানিক মিয়া, মোবারক হোসেন ও খায়রুল।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বার্তা ২৪.কমকে বলেন, ওই সময় টেকনাফের শাপলাপুর বিচ এলাকায় কিছু লোকজনকে জড়ো করে ট্রলারে উঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে, এমন খবরে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মানব পাচারকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ গুলি বিনিময়ের পর এক পর্যায়ে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই পাচারকারীকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতাল থেকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

আহত পুলিশ সদস্যদের টেকনাফে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় দুইটি অস্ত্র ও পাঁচ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

পুকুর ভাড়ায় পাট জাগ, দুর্ভোগে চাষিরা

পুকুর ভাড়ায় পাট জাগ, দুর্ভোগে চাষিরা
ভাড়া করা পুকুরে পাট জাগ দিচ্ছেন এক কৃষক

আধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে কৃষকের ভাগ্যের উন্নয়ন ঘটেছে। বিজ্ঞানের যুগান্তকারী নানা উদ্ভাবনের ফলে কৃষিকাজ হয়েছে সহজতর। কিন্তু পাটের আঁশ ছাড়ানোর সেই সনাতন পদ্ধতি আজও রয়ে গেছে।

একদিকে অনাবৃষ্টি অন্যদিকে খাল-বিল, নদী-নালা ভরাটের ফলে পাট জাগ দেওয়া নিয়ে কৃষকের দুর্ভোগের সীমা নেই। বাধ্য হয়ে অন্যের পুকুর ভাড়া নিয়ে পাট জাগ দিচ্ছেন মেহেরপুর জেলার কৃষকরা। আর একই পুকুরে বার বার পাট জাগ দেওয়ায় পাটের রং যাচ্ছে নষ্ট হয়ে। ফলে পাটের দাম কম পাচ্ছেন চাষিরা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জেলায় চলতি মৌসুমে ১৯ হাজার ৯২০ হেক্টর জমিতে পাট আবাদ হয়েছে। যা গত বছর ছিল ২৫ হাজার হেক্টরের উপরে। পাট চাষ নিয়ে নানা রকম সমস্যা ও দর পতনের ফলে চাষিরা অর্থকরী এই ফসল আবাদে বিমুখ হচ্ছেন।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/19/1566206669467.jpg

বানিয়াপুকুর গ্রামের কৃষক আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, বর্ষাকালে চাইলেই সব ফসল আবাদ করা যায় না। কিছু জমি আছে যেখানে একমাত্র পাট আবাদ করা যায়। ফলে বাধ্য হয়ে পাট আবাদ করতে হচ্ছে।

ভোমরদহ গ্রামের পাটচাষি মিলন হোসেন বলেন, ১ বিঘা জমির পাট জাগ দিতে পুকুর ভাড়া দিতে হচ্ছে ১ হাজার টাকা পর্যন্ত। একটি পুকুরে বার বার পাট জাগ দিতে গিয়ে পাটের রং নষ্ট হচ্ছে। ফলে দর কমে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: পুকুর ভাড়া নিয়ে চলছে পাট জাগ

চাষি আরও জানান, সব পাটচাষির নিজস্ব পুকুর নেই। খাল-বিল, নদী-নালায়ও নেই পানি। আবার কিছু জলাশয় বেদখল হয়েছে। ফলে পুকুর ভাড়া নিয়ে পাট জাগ দেওয়া ছাড়া তাদের বিকল্প কোন উপায়ও নেই।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/19/1566206786332.jpg

স্থানীয় বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতি মণ পাট বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ২০০ টাকা থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা দামে। এই দরে পাট বিক্রি করে লাভ তো দূরের কথা আবাদ খরচই উঠছে না বলে জানিয়েছেন চাষিরা।

মেহেরপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, পাটের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা না গেলে এক সময় পাট আবাদ বন্ধ হয়ে যাবে। প্রতি বছর আবাদ খরচ বৃদ্ধি পেলেও পাটের দর বৃদ্ধি পাচ্ছে না, এটা দুঃখজনক।

চুয়াডাঙ্গায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক

চুয়াডাঙ্গায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক
শিশু ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার, ছবি: সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ভূমিহীন পাড়ায় তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় সোমবার (১৯ আগস্ট) সুলতান (২১) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।

সুলতান একই এলাকার ভূমিহীনপাড়ার তুরাপ আলির ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রোববার (৪ আগস্ট) দুপুরে খালি বাসায় শিশুটিকে ধর্ষণ করে সুলতান। বাবা-মা বাসায় ফিরলে শিশুটি ঘটনাটি তাদের অবহিত করে। এই ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। সোমবার দুপুরে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ধর্ষক সুলতানকে ভূমিহীন পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র