Barta24

রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

সাভারে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

সাভারে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ
বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, ছবি: বার্তা২৪
উপজেলা করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা (সাভার)


  • Font increase
  • Font Decrease

সাভারের আশুলিয়ায় বকেয়া বেতনের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো সেঞ্চুরি ডিজাইন এন্ড ফ্যাশন কারখানায় কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। দাবি না মানায় কারখানার এক কর্মকর্তাকে রাত ৮টা পর্যন্ত অবরুদ্ধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা।

বুধবার (১৫ মে) সকালে সাভারের কলমা এলাকায় সেঞ্চুরি ডিজাইন এন্ড ফ্যাশন কারখানায় দ্বিতীয় দিনের মতো বকেয়া ৫ মাসের বেতনের দাবিতে কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ শুরু করে শ্রমিকরা। দিন শেষে বকেয়া বেতন পরিশোধ না করায় রাত ৮টা পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত রেখে কারখানার কর্মকর্তা সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেনকে অবরুদ্ধ করে রাখেন শ্রমিকরা।

বার্তা২৪

কারখানাটির শ্রমিক মেকানিক্স আব্দুস সাত্তার বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে মালিকপক্ষ আমাদের বেতন পরিশোধ করবে বলে একাধিকবার সময় নিয়েও বেতন পরিশোধ করেনি। আমরা এই কারখানা ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে চাইলে মালিকপক্ষ আমাদের ২ মাসের বেতন কেটে রাখার হুমকি দেয়। এখন পাঁচ মাস ধরে বেতন না পেয়ে আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। বেতন পাওয়ার আশায় আমরা ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গা থেকে ধার দেনা করে খেয়ে বসে আছি। ঈদের আগে সব দেনা পরিশোধ করে দেয়ার জন্য পাওনাদারদেরকে সময় দিয়েছি। কিন্তু মালিকপক্ষ আমাদের বেতন পরিশোধ না করে বিভিন্নভাবে তালবাহানা করে যাচ্ছে। এরই মধ্যে গত দুইদিন আগে মালিকপক্ষ ১৮০ টি মেশিন বিক্রি করে দিয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে তারা কারখানা বন্ধ করে পালিয়ে যেতে পারে। তাই বাধ্য হয়ে আমরা বেতন আদায়ের জন্য কারখানায় অবস্থান নিয়েছি।’

কারখানার মার্চেন্ডাইজার সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘সামনে আমাদের একটি শিপমেন্ট রয়েছে। এ শিপমেন্ট হয়ে গেলে আমরা শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করতে পারব। এছাড়াও শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের বিকল্প পদ্ধতি হিসেবে আমরা ব্যাংক থেকে লোণ নেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। খুব শিগগিরি কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা হবে।’

আশুলিয়া শিল্প-পুলিশের পরিচালক সানা সামিনুর রহমান মালিক পক্ষের বরাত দিয়ে বার্তা২৪.কমকে বলেন, আগামী রোববারের মধ্যে শ্রমিকরা তাদের পাওনা টাকা পাবে বলে জানিয়েছে মালিক পক্ষ।

আপনার মতামত লিখুন :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বুধল বাজারে ভিগো'র বৃহত্তম শাখার উদ্বোধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বুধল বাজারে ভিগো'র বৃহত্তম শাখার উদ্বোধন
ছবি: সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর থানার বুধল বাজারে উদ্বোধন হলো ইলেকট্রনিক্স হোম অ্যাপ্লায়েন্সের ব্র্যান্ড ভিগো'র এক্সক্লুসিভ শাখা, শো রুম মেসার্স মাহদী এন্টারপ্রাইজ।

রোববার (২১ জুলাই) বিকেল ৫টায় উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তির প্রতীক পায়রা, বেলুন উড়িয়ে ও লাল ফিতা কেটে শো রুমটির উদ্বোধন করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া এই শাখাটি ভিগো ইলেকট্রনিক্স এক্সক্লুসিভের ৫৬তম শাখা। শাখাটি ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার ভিগো'র দ্বিতীয় বৃহত্তর শাখা। এ শাখা থেকে জেলার বিভিন্ন স্থানে পণ্য সরবরাহ করা হবে। নতুন শাখার উদ্বোধন উপলক্ষে মাহদী এন্টারপ্রাইজ দিচ্ছে বিশেষ অফার- ফ্রিজ, এসি, টিভি সহ সকল পণ্যে ১০% ছাড়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অপস্থিত ছিলেন- আরএফএল এক্সক্লুসিভ শো রুমের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার কে এম সামসুজ্জামান, মেসার্স মাহদী এন্টারপ্রাইজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল ইসলাম মনির, ভিগো এক্সক্লুসিভ শো রুম আরএফএলের সেলস এক্সকিউটিভ মো. মনজুর হোসেন মজুমদার, বীরমুক্তিযুদ্ধা মো. জিল্লুর রহমান, শফিক মাষ্টার এবং আলমগীর মাষ্টার প্রমুখ।

ফরিদপুরে বন্যায় ২৬ স্কুল বন্ধ

ফরিদপুরে বন্যায় ২৬ স্কুল বন্ধ
ফরিদপুর সদর ও চরভদ্রাসনে ১৪টি এবং সদরপুরে ১২টি বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ফরিদপুরে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। গোয়ালন্দ পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় ২৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

রবিবার (২১ জুলাই) থেকে ফরিদপুরের বন্যা কবলিত তিনটি উপজেলার ২৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563723952612.jpg
সদরপুরে দুটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভাঙ্গনের ঝুঁকিতে রয়েছে

 

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম বলেন, 'ফরিদপুর সদর ও চরভদ্রাসনে ১৪টি এবং সদরপুরে ১২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া সদরপুরে দুটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভাঙ্গনের ঝুঁকিতে রয়েছে।' 

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563724007023.jpg
গত ২৪ ঘণ্টায় নদীর পানি আরও ২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে

 

গোয়ালন্দ পয়েন্টের গেজ রিডার ইদ্রিস আলী বলেন, 'গত ২৪ ঘণ্টায় ওই পয়েন্টে পদ্মা নদীর পানি আরও ২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন পানি বিপদসীমার ৬৮ সেন্টিমিটার (৯ দশমিক ৩৩) উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563724046748.jpg
 জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের ত্রাণ সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে 

 

জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, 'ফরিদপুর সদর, চরভদ্রাসন ও সদরপুর উপজেলার পদ্মাপাড়ের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। তবে বন্যার প্রকট রূপ ফরিদপুরে ধারণ করেনি। তারপরও যেটুকু কবলিত হয়েছে এবং যেসকল এলাকার মানুষ  বন্যা কবলিত জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের ত্রাণ সামগ্রীসহ সার্বিক খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে।'

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র