Alexa

পাবনায় শিক্ষক লাঞ্ছনা: গ্রেফতার ২, ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত

পাবনায় শিক্ষক লাঞ্ছনা: গ্রেফতার ২, ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত

শহীদ বুলবুল কলেজের শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার মামলায় গ্রেফতার দুইজনকে আদালতে নেওয়া হয়, ছবি: বার্তা২৪

পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের এক শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় মামলা হয়েছে। স্থাগিত করা হয়েছে কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিবলী সাদিক কলেজ শাখা কমিটি স্থগিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে বুধবার রাতে কলেজের অধ্যক্ষ এস এম আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাত ৩/৪ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

রাতেই অভিযান চালিয়ে এজাহার নামীয় দুই আসামি সজল ইসলাম ও শাফিন শেখকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হক জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে হাজির করা হয়েছে। তাদের রিমান্ডে নেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হবে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, তদন্ত করে গ্রেফতারকৃতদের বাইরেও এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিকে, কলেজটির কয়েকজন শিক্ষক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, মামলাটি দিয়ে দায়সারাভাবে করা হয়েছে। শিক্ষকের উপর হামলাকারীদের সুকৌশলে বাদ দিয়ে নামে মাত্র কয়েকজনকে আসামি করে মামলাটি করা হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে কথা বলতে অধ্যক্ষ এসএম আব্দুল কুদ্দুসের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পাবনায় শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় মামলা, ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত

একাধিক সূত্র জানায়, হামলার ঘটনাটি ভিন্নখাতে নিতে উল্টো ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের সাথে অশালীন আচরণের অভিযোগ আনা হয়। হামলার ভিডিওতে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সামসুদ্দিন জুন্নুনকে দেখা গেলেও অজ্ঞাত কারণে মামলায় তাকে আসামি করা হয়নি। এ নিয়ে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, কলেজের অধ্যক্ষ যাদের নাম উল্লেখ করে মামলা দিয়েছেন, অভিযান চালিয়ে সেই মোতাবেক কাজ করা হচ্ছে। এখন মামলার বাইরে যদি কেউ জড়িত থাকে, অধিকতর তদন্ত করেই তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে বিচারের সম্মুখীন করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৬ মে পরীক্ষা কেন্দ্রে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে দুই পরীক্ষার্থীর খাতা জব্দ করেন শিক্ষক মাসুদুর রহমান। এর জের ধরে গত ১২ মে কলেজ থেকে বাসায় ফেরার পথে কলেজ গেটে মাসুদুর রহমানকে মারধর করে কয়েকজন যুবক। সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া সেই হামলার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। এরপরই টনক নড়ে কলেজ ও পুলিশ প্রশাসনের।

আরও পড়ুন: নকলে বাধা দেওয়ায় ছাত্রলীগের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত

আপনার মতামত লিখুন :