Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ফেরি চলাচল বন্ধ

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ফেরি চলাচল বন্ধ
ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
মানিকগঞ্জ  


  • Font increase
  • Font Decrease

বৈরি আবহাওয়ার কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার ( ১৭ মে) সন্ধ্যা পৌনে ৭ টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

বিআইডব্লিউটিএ আরিচা কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক মহিউদ্দিন রাসেল বার্তা২৪.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু করা হবে।

এদিকে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মহাসড়কের উভয় পাশে দেখা দিয়েছে তীব্র যানজট। শতশত মালবাহী ও যাত্রীবাহী বাস ট্রাক আটকা পড়েছে।  এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। 

আপনার মতামত লিখুন :

মামলা তুলে না নেয়ায় ছাত্রীকে গণধর্ষণ

মামলা তুলে না নেয়ায় ছাত্রীকে গণধর্ষণ
আসামি লাল্টু। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় আসামিদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তুলে না নেয়ায় গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক মাদরাসা ছাত্রী (১৩)।

রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে তিনজনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন ওই মাদরাসা ছাত্রীর বাবা আনারুল। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকার বাসিন্দা।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকার জয়নালের ছেলে লাল্টু (৩৫), মৃত সভা ভোরামীর ছেলে শরীফুল (৪০) ও মিলনের ছেলে রাজু (৩০) প্রায়ই ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করত। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা শীলা খাতুন বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা আদালতে মাসখানেক আগে শ্লীলতাহানির অভিযোগে একটি মামলা করেছিলেন। তবে মামলা তুলে না নিলে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হবে বলে বারবার হুমকি দিয়েছিল আসামিরা। এর জের ধরেই শনিবার (১৭ আগস্ট) মধ্য রাতে ওই ছাত্রীকে তার বাড়ির পাশে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা-মাকেও পিটিয়ে আহত করা হয়।

আলমডাঙ্গা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহাবুবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আজ দুপুরে লাল্টু নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

নাটোরের লালপুরে পদ্মায় গোসলে নেমে মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজ

নাটোরের লালপুরে পদ্মায় গোসলে নেমে মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজ
মাদরাসা ছাত্রকে খুঁজতে পদ্মায় অভিযান চলছে, ছবি: সংগৃহীত

নাটোরের লালপুর উপজেলায় পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে হারুনুর রশীদ (১৪) নামের এক মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে। হারুন মোহরকয়া গ্রামের জাকারিয়া হোসেনের ছেলে। সে ঢাকার একটি মাদরাসায় লেখাপড়া করে।

রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুর আড়াইটায় স্থানীয় মোহরকয়া ইটভাটা সংলগ্ন পদ্মা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

হারুনের বাবা জাকারিয়া হোসেন জানান, ঈদের এক সপ্তাহ আগে ছুটিতে বাড়িতে আসে হারুন। এ সপ্তাহেই তার ঢাকা ফেরার কথা ছিল। রোববার দুপুরে বাড়ি থেকে পদ্মায় গোসলের কথা বলে বের হয় সে। গোসলের একপর্যায়ে তাকে তলিয়ে যেতে দেখে ইটভাটার শ্রমিকরা। 

এদিকে, লালপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি দল হারুনকে উদ্ধারে পদ্মায় অভিযান পরিচালনা করছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র