Barta24

বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

English

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ৫ দালালের জেল-জরিমানা

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ৫ দালালের জেল-জরিমানা
৫ দালালকে জরিমানা করা হয়, ছবি: সংগৃহীত
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঝিনাইদহ


  • Font increase
  • Font Decrease

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে ৫ দালালকে বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (১৯ মে) দুপুরে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেহ মো: হাসনাত এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডিতরা হলেন- সদর উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের জলিল মালিতার ছেলে সজল মালিতা (৩০), পূর্ব নারায়ণপুর গ্রামের তাসেম আলীর ছেলে জামিরুল ইসলাম (৩৫), দুর্গাপুর গ্রামের আইয়ুব হোসেনের ছেলে রানা (২৫), কালীগঞ্জ উপজেলার কোলা গ্রামের ভোলার ছেলে সুজন হোসেন (২৮) ও সদর উপজেলার ধোপাবিলা গ্রামের ছবেদ আলীর ছেলে সানাউল্লাহ (৪৫)।

র‌্যাব জানায়, সদর হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীরা দালালদের খপ্পরে পড়ে প্রতারিত হচ্ছেন এমন অভিযোগে দুপুরে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। এসময় হাসপাতাল থেকে ৫জনকে আটক করা হয়। পরে আদালত বসিয়ে অভিযোগ স্বীকার করলে সজল, জামিরুল, রানা ও সুজন হোসেনকে ৫ দিন করে কারাদণ্ড ও ২শ টাকা করে জরিমানা এবং সানাউল্লাহকে ২শ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে র‌্যাব-৬, সিপিসি-২ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :

খাবারসহ বৃদ্ধাকে কবরস্থানে রেখে গেলেন স্বজনরা

খাবারসহ বৃদ্ধাকে কবরস্থানে রেখে গেলেন স্বজনরা
রেখে যাওয়া কবরস্থানে বসে আছেন ওই বৃদ্ধা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

কুমিল্লায় একটি কবরস্থানে অজ্ঞাতনামা এক বৃদ্ধা মহিলাকে (৬৮) রেখে যায় তার স্বজনরা। জানা যায়, চারদিন আগে তাকে এখানে রেখে গিয়েছে। সড়ক থেকে স্পষ্টভাবে দেখা না যাওয়ায় প্রথমদিকে বিষয়টি জানাজানি হয়নি।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকালে বিষয়টি জানাজানি হলে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মাহফুজের নির্দেশে মহিলাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পুলিশের একটি টিম।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কনকাতৈপ ইউনিয়নের ধোড়করা-চাঁনকার দীঘি সড়কের পাশে পাঠানপাড়ার এলাকায় স্থানীয় একটি কবরস্থানে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, কে বা কাহারা গত চারদিন আগে খুরশিদা বেগম নামের বৃদ্ধাকে কবরস্থানে রেখে যায়। এ সময় তার পাশে চার প্যাকেট খাবার, চারটি পানির বোতল, একটি মশার কয়েল ছিল। ওই নারী কথা বলতে পারে।

কিন্তু নিজের নাম, গ্রাম বা অন্য পরিচয় কারও কাছে বলছেন না। বিশেষ করে ছেলেদের নাম জিজ্ঞেস করলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং বলে- 'ক্যান্টনমেন্ট এলাকার মেহেরাজের জামাই রায়হান ও বিজয়পুরের সবুজের বাপে জানে'। আর কিছুই বলতে চান না এ বৃদ্ধা।

এ বিষয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মাহফুজ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'গণমাধ্যম কর্মীদের কাছ থেকে বিষয়টি জেনে ওই বৃদ্ধাকে কবরস্থান থেকে উদ্ধারের নির্দেশ দিয়েছি। তিনি নিজের পরিচয় গোপন রেখেছেন।' পুলিশের পক্ষ থেকে জানার চেষ্টা চলছে বলে ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান।

ভুল ব্যানারে জাতীয় শোক দিবস পালন, ক্ষমা চেয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ

ভুল ব্যানারে জাতীয় শোক দিবস পালন, ক্ষমা চেয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ
ছবি: সংগৃহীত

বরগুনার তালতলী সরকারি কলেজে ভুল ব্যানারে জাতীয় শোক দিবস ও শাহাদাত বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ কারণে ক্ষমা চেয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিতভাবে ক্ষমা চাওয়া হয়।

জানা গেছে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনে তালতলী সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের নিয়ে র‌্যালি বের করে। কলেজের ওই ব্যানারে ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকীর পরিবর্তে ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী লেখা ছিল।

বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশ হয়। পরে তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ন দাশ শুভ এই ভুলের জন্য কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রবীন্দ্রনাথ হাওলাদারকে ৩ কার্য দিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন। আজ ৪র্থ কার্যদিবসে কলেজ কর্তৃপক্ষ লিখিতভাবে ক্ষমা চেয়েছে।

উপজেলা নিবার্হী অফিসার দীপায়ন দাশ শুভ জানান, নোটিশ প্রদানের পরে অনাকাঙ্ক্ষিত এবং অনভিপ্রেত এই ভুলের জন্য লিখিতভাবে ক্ষমা চেয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকীতে ৪২তম বার্ষিকীর ব্যানার!

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র