Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

১৩০ বছর বয়সী বৃদ্ধা‌কে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

১৩০ বছর বয়সী বৃদ্ধা‌কে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার
ধর্ষক সোহেল। ছবি: বার্তা২৪.কম
ডি‌স্ট্রিক্ট ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
টাঙ্গাইল


  • Font increase
  • Font Decrease

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ১৩০ বছরের এক বৃদ্ধা। এ ঘটনায় ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বুধবার (২২ মে) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার (২১ মে) সন্ধ্যায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার ছেলে দুদু মিয়া (৭৫) থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

ধর্ষণের শিকার ওই বৃদ্ধা মধুপুর উপজেলার ফুলবাগচালা ইউনিয়নের আংগারিয়া গ্রামের বাসিন্দা। ধর্ষক সোহেল একই গ্রামের তোতা খা’র ছেলে।

জানা গেছে, বয়সের ভারে ন্যুব্জ অন্ধ ওই বৃদ্ধা চলাফেরা করতে পারেন না। সুযোগ বুঝে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে ধর্ষণ করে সোহেল।

এদিকে সম্মানের ভয়ে ভুক্তভোগীর পরিবার তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়নি। এখনো মুমূর্ষু অবস্থায় রয়েছেন ওই বৃদ্ধা।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিক কামাল জানান, ধর্ষিতা ওই বৃদ্ধার ছেলে বাদী হয়ে মধুপুর থানায় মামলা করেছেন। ধর্ষক সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলায় বৃদ্ধার বয়স উল্লেখ করা হয়েছে ১৩০ বছর।

আপনার মতামত লিখুন :

উখিয়া ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

উখিয়া ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে রোহিঙ্গা যুবক নিহত
রোহিঙ্গা ক্যাম্প, ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে এক রোহিঙ্গা যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২৫ আগস্ট) রাত ৮টার সময় উখিয়ার কুতুপালং রেজি. ক্যাম্পের দুই নং স্কুলের সামনে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত যুবকের নাম রহিম উল্লাহ। সে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ব্লকের বাসিন্দা আবদুস সালামের ছেলে।

ক্যাম্প সূত্রে জানা গেছে, উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা আবদুস সালামের ছেলে রহিম উল্লাহ ও একই ক্যাম্পের বাসিন্দা শহীদুল্লাহ, তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শহীদুল্লাহ সহ বেশ কয়েকজন মিলে রহিমকে বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে রহিমকে উদ্ধার করে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এনজিও পরিচালনাধীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। রাত ৯টার দিকে মৃত্যুবরণ করেন।

উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, 'এ ধরনের ঘটনার কথা শুনেছি। তবে বিস্তারিত ঘটনা এখনো পায়নি।'

বগুড়ায় গলা কেটে গৃহবধূকে হত্যা

বগুড়ায় গলা কেটে গৃহবধূকে হত্যা
ছবি: সংগৃহীত

বগুড়ার শিবগঞ্জে রওশন আরা (৪৫) নামে এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার (২৫ আগস্ট) সন্ধ্যার পর নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রওশন শিবগঞ্জ থানার রায়নগর ইউনিয়নের অনন্তবালা গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী।

জানা গেছে, শাহ আলমের একমাত্র ছেলে দুবাই থাকেন। মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন বেশ কয়েক বছর আগে। স্ত্রীকে নিয়ে শাহ আলম গ্রামের বাড়িতে বসবাস করেন। রোববার বিকেলে শাহ আলম বাড়ির বাইরে যান। রাত ৮টার দিকে বাড়িতে ফিরে কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে স্ত্রীকে খুঁজতে থাকেন। এক পর্যায়ে ঘরের মেঝেতে স্ত্রীর গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হলে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ রাত ৯টায় মরদেহ উদ্ধার করে।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘কে বা কারা কি কারণে হত্যা করতে পারে সে বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু হয়েছে। অনুসন্ধান শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র