Barta24

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

সিঙ্গাপুরে দুর্ঘটনায় গাইবান্ধার যুবক নিহত

সিঙ্গাপুরে দুর্ঘটনায় গাইবান্ধার যুবক নিহত
সিঙ্গাপুরে নিহত জিল্লুল রহমান, ছবি: সংগৃহীত
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
গাইবান্ধা


  • Font increase
  • Font Decrease

সিঙ্গাপুরে নিজ কর্মস্থলে ফ্রকলিফটের চাপায় জিল্লুল রহমান (২৭) নামের গাইবান্ধার এক যুবক নিহত হয়েছেন।

রোববার (২৬ মে) এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জিল্লুল রহমান গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কামারদহ ইউনিয়নের রসুলপুরের মাঝপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

সোমবার (২৮ মে) দুপুরে নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জিল্লুল রহমান পেটের দায়ে ২০১৩ সালে সিঙ্গাপুর যান। সেখানে গিয়ে এএস আই শিপ মেরিনে জাহাজে রং করার কাজ নেন। গত ছয় বছর ধরে একই কোম্পানিতে কাজ করছিলেন তিনি।

এক পর্যায়ে সিঙ্গাপুরের ওই কর্মস্থলেই রোববার দুপুরের পর মালামাল বহনকারী ফ্রকলিফটের চাপায় স্পটেই মৃত্যু হয় তার।

তবে তার মরদেহ কবে বাংলাদেশে আসবে এ প্রশ্নের জবাবে নিহতের  খালাতো ভাই রতন মিয়া বলেন, 'সিঙ্গাপুর সরকারের নিয়ম অনুযায়ী বিষয়টি তদন্ত হবে। তারপর তার লাশ দেশে আনা হবে।'

আপনার মতামত লিখুন :

টাঙ্গাইলে বন্যার পানিতে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

টাঙ্গাইলে বন্যার পানিতে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বন্যার পানিতে ডুবে তানজিলা (৮) ও লিমা (৫) নামে দুইবোনের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের চরদূর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা ওই গ্রামের আবু সাঈদের মেয়ে। তানজিলা স্থানীয় একটি প্রাইমারি বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে ও লিমা প্রথম শ্রেণিতে পড়ত।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার চর দূর্গাপুর গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করায় ওই দুই শিশু পানিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা বাড়ির পাশেই তাদের দেহ পানিতে ভাসতে দেখে উদ্ধার করেন।

দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন প্রামানিক জানান, ওই গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করায় দুই শিশু পানিতে পড়ে মারা যায়। তারা সম্পর্কে আপন বোন।

পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পায়নি বন্যার্তরা, হতবাক প্রতিমন্ত্রী

পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পায়নি বন্যার্তরা, হতবাক প্রতিমন্ত্রী
ত্রাণ বিতরণকালে বন্যার্তদের উদ্দেশে কথা বলছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে বন্যার্তদের পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট না দেয়ার কথা জানতে পেরে হতবাক হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। এ সময় বন্যার্তদের মধ্যে দ্রুত পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তাগিদ দেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলার কসবা এলাকায় (বিবিয়ানা পাওয়ার প্ল্যান্টের কাছে) একটি মাঠে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট না দেয়ার বিষয়টি লক্ষ্য করেন তিনি।

ত্রাণ বিতরণকালে বন্যার্তদের উদ্দেশে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেন, ‘আপনারা সবাই পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পেয়েছেনতো ?’ এ সময় ত্রাণ নিতে আসা কয়েক শতাধিক নারী পুরুষ এক সঙ্গে বলেন না, পাইনি’। বিষয়টি শুনে অনেকটা হতবাক হন প্রতিমন্ত্রী। এ সময় তিনি প্রশাসনের লোকজনের দিকে তাকিয়ে থাকেন। পরে বন্যার্তদের পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তাগিদ দেন।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদ-বিন হাসান বলেন, ‘আমি যথেষ্ট পরিমাণে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পাইনি। এ কারণে শুধুমাত্র আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে দিতে পেরেছি। মাঠ পর্যায়ে দেয়া সম্ভব হয়নি।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র