মৌলভীবাজারে আইনজীবী আবিদা হত্যায় আটক ১

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মৌলভীবাজার
আটক মাওলানা তানভীর আলম, ছবি: বার্তা২৪

আটক মাওলানা তানভীর আলম, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় আবিদা সুলতানা (৩৫) নামে এক নারী আইনজীবী হত্যায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করা হয়েছে। তার নাম মাওলানা তানভীর আলম (৩৫)। তিনি নিহতের বাবার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আব্দুস ছালেক জানান, সোমবার (২৭ মে) দুপুরে ইমামের ছদ্মবেশ ধরে পুলিশ সদস্যরা শ্রীমঙ্গল উপজেলার বরুনা মাদরাসা সংলগ্ন একটি একটি গ্রাম থেকে তাকে আটক করে। বর্তমানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

তানভীর আলম সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার ময়নুল ইসলামের ছেলে। তিনি বড়লেখা উপজেলার মাদবকুল জামে মসজিদের ইমাম।

রোববার (২৬ মে) মধ্যরাতে জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য আবিদা সুলতানার মরদেহ বড়লেখা উপজেলার মাধবগুল গ্রামে তার বাবার বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়। তারপর থেকে ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া তানভীর আলম পলাতক ছিলেন। সেখান থেকে তার মা ও বোনকে জিজ্ঞাসবাদের জন্য আটক করেছিল পুলিশ।

নিহত আবিদা উপজেলার দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়নের মাধবগুল গ্রামের মৃত আব্দুল কাইয়ুমের মেয়ে। তার স্বামী শরীফুল ইসলাম ওষুধ কোম্পানিতে কর্মরত। তার সঙ্গে আবিদা মৌলভীবাজার শহরে বাস করতেন।

আবিদার খালাতো বোন শিমুল চৌধুরী বলেন, আবিদার মানসিক ভারসাম্যহীন মা মেজ মেয়ের বাড়ি বিয়ানীবাজারে থাকেন। আর আবিদার পৈতৃক বাড়িতে তাদের পরিবারের কেউ না থাকায় উপজেলার চরকোনা গ্রামের মনির আলীর ছেলে তানভীর আহমদ (৩৫) সেখানে ভাড়া থাকতেন।

আরও পড়ুন: মৌলভীবাজারে নারী আইনজীবী খুন

আপনার মতামত লিখুন :