Barta24

সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

English

নরসিংদীতে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে হত্যার পর ধর্ষণ

নরসিংদীতে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে হত্যার পর ধর্ষণ
হত্যার পর ধর্ষণের ধায়ে অভিযুক্ত সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে র‌্যাব/ ছবি: সংগৃহীত
ডিসিট্রক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
নরসিংদী


  • Font increase
  • Font Decrease

প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান কারায় নরসিংদীতে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে প্রথমে হত্যা ও পরে মৃত কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত সাইফুল ইসলামকে গ্রেফাতার করেছে র‌্যাব-১১।

মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে শিবপুর উপজেলার কলেজ গেইট এলাকা থেকে অভিযুক্ত ঐ ধর্ষককে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১ এর একটি অভিযানিক দল। গ্রেফতারকৃত সাইফুল ইসলাম শিবপুর উপজেলার দুলালপুর এলাকার মৃত হানিফ ফকিরের ছেলে।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে নরসিংদী প্রেসক্লাবের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানায় র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল শামশের উদ্দিন।
সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব জানায়, অভিযুক্ত সাইফুলের সাথে প্রায় তিন মাস আগে একটি মাজারে পরিচয় হয় একই উপজেলার মাছিমপুর এলাকার ঐ শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীর।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/12/1560336442346.jpg

এরপর থেকে দুই সন্তানের পিতা সাইফুল ঐ কিশোরীকে একাধিকবার কু-প্রস্তাব দেয়। এতে কিশোরীটি রাজি না হওয়ায় গত ৬ জুন তাকে নিয়ে সিএনজিতে করে দুলালপুর এলাকার কাজীবাড়ির একটি কলা বাগানে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় সাইফুল।

এ সময় ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তাকে প্রথমে গলাটিপে হত্যা ও পরে মৃত ঐ প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ করে সাইফুল। ঘটনার দুইদিন পর ঐ এলাকা থেকে কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করে শিবপুর থানা পুলিশ।

পরে কিশোরীর মায়ের দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে অভিযুক্ত সাইফুল ইসলামের সম্পৃক্ততা নিশ্চিত করে র‌্যাব-১১। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম অভিযোগ স্বীকার করেছে বলে জানায় র‌্যাব।

আপনার মতামত লিখুন :

নারায়ণগঞ্জে ৭০ বছরের পুরনো পার্ক উচ্ছেদ

নারায়ণগঞ্জে ৭০ বছরের পুরনো পার্ক উচ্ছেদ
টানবাজার পার্ক উচ্ছেদ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

নারায়ণগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী টানবাজার পার্ক ভেঙে বহুতল ভবন নির্মাণের লক্ষে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক)। প্রায় এক একর জায়গা জুড়ে পার্কটির স্থাপনা উচ্ছেদ করে নাসিকের কর্মকর্তারা।

সোমবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে টানবাজার পার্কের ২২১টি দোকান গুঁড়িয়ে দেয়া হয় এক্সাভেটরের মাধ্যমে। প্রায় ৭০ বছর পূর্বে নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রধান মার্কেট হিসেবে টানবাজার পার্কটি পরিচিতি ছিল। 

উচ্ছেদ টিমের প্রধান সার্ভেয়ার আবুল কালাম জানান, পূর্বের সময় বেধে দেয়ার পর আজ পার্ক উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এখানে অবস্থিত ১ একর (প্রায় তিন বিঘা) জায়গায় বহুতল ভবন নির্মাণ করা হবে। ভবনের তিনতলা পুরোটা জুড়ে গাড়ি পার্কিং থাকবে। এতে শহরের যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং রোধ করে এখানে সু-শৃঙ্খলভাবে পার্কিং ব্যবস্থার সুযোগ হবে।

তিনি আরও বলেন, টানবাজার পার্কে ২২১টি দোকান যাদের রয়েছে তাদের সকলেই এ ভবনে একটি করে দোকান পাবেন তবে কিছু শর্তের প্রেক্ষিতে। উচ্ছেদ চলাকালে কেউ আমাদের বাঁধা দেয়নি, বরং মালিকরাই দোকান উচ্ছেদে সহযোগিতা করেছেন। এতে উচ্ছেদ পরিচালনা দ্রুত সময়ে শেষ হবে আশা করি।

তবে টানবাজার পার্কের মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী হানিফ উদ্দিন সেলিম জানান, আমরা নাসিকের মেয়রের সঙ্গে দেখা করে সময় বৃদ্ধির আবেদন করেছিলাম। কিন্তু তিনি আজই ভেঙ্গে দিলেন পুরো মার্কেটটি।

 

 

মানিকগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

মানিকগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার
ছবি: প্রতীকী

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রাম থেকে রুপালী বেগম (৩০) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৬ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করা হয়। রুপালী বেগম ওই এলাকার প্রবাসী রাজা মিয়ার স্ত্রী।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, স্থানীয়দের দেওয়া খবরের উপর ভিত্তি করে লাশটি উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে- ওই নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র