Barta24

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

লোহাগড়ায় এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

লোহাগড়ায় এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
নাজমুলের মরদেহ দেখতে ভিড় করেছেন স্থানীয়রা, ছবি: বার্তা২৪.কম
ডিস্টিক্ট করেসপন্ডেন্ট
র্বাতা২৪.কম
নড়াইল


  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার গিলাতলা গ্রাম থেকে নাজমুল শেখ (৪২) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৭ জুন) সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি ওই গ্রামের মোসলেম শেখের ছেলে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রোববার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি নাজমুল। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাচ্ছিলেন না স্বজনরা। সোমবার সকালে উপজেলার বসুপট্টি-গিলাতলা সড়কের পাশে তার মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত নাজমুলের মা অতিরণ বেগম অভিযোগ করেন, পাশের বাড়ির গোলাম নবীর স্ত্রীর সঙ্গে নাজমুলের পরকীয়া ছিল, এ নিয়ে অনেক বার সালিশ-বিচার হয়েছে। তারাই নাজমুলকে হত্যা করেছেন। তিনি এ হত্যার বিচার চান।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোকাররম হোসেন বার্তা২৪.কমকে জানান, পরকীয়ার কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :

টাঙ্গাইলে বন্যার পানিতে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু

টাঙ্গাইলে বন্যার পানিতে ডুবে ২ বোনের মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বন্যার পানিতে ডুবে তানজিলা (৮) ও লিমা (৫) নামে দুইবোনের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের চরদূর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা ওই গ্রামের আবু সাঈদের মেয়ে। তানজিলা স্থানীয় একটি প্রাইমারি বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে ও লিমা প্রথম শ্রেণিতে পড়ত।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার চর দূর্গাপুর গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করায় ওই দুই শিশু পানিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা বাড়ির পাশেই তাদের দেহ পানিতে ভাসতে দেখে উদ্ধার করেন।

দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন প্রামানিক জানান, ওই গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করায় দুই শিশু পানিতে পড়ে মারা যায়। তারা সম্পর্কে আপন বোন।

পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পায়নি বন্যার্তরা, হতবাক প্রতিমন্ত্রী

পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পায়নি বন্যার্তরা, হতবাক প্রতিমন্ত্রী
ত্রাণ বিতরণকালে বন্যার্তদের উদ্দেশে কথা বলছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে বন্যার্তদের পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট না দেয়ার কথা জানতে পেরে হতবাক হয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। এ সময় বন্যার্তদের মধ্যে দ্রুত পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তাগিদ দেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলার কসবা এলাকায় (বিবিয়ানা পাওয়ার প্ল্যান্টের কাছে) একটি মাঠে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট না দেয়ার বিষয়টি লক্ষ্য করেন তিনি।

ত্রাণ বিতরণকালে বন্যার্তদের উদ্দেশে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেন, ‘আপনারা সবাই পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পেয়েছেনতো ?’ এ সময় ত্রাণ নিতে আসা কয়েক শতাধিক নারী পুরুষ এক সঙ্গে বলেন না, পাইনি’। বিষয়টি শুনে অনেকটা হতবাক হন প্রতিমন্ত্রী। এ সময় তিনি প্রশাসনের লোকজনের দিকে তাকিয়ে থাকেন। পরে বন্যার্তদের পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তাগিদ দেন।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৌহিদ-বিন হাসান বলেন, ‘আমি যথেষ্ট পরিমাণে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পাইনি। এ কারণে শুধুমাত্র আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে দিতে পেরেছি। মাঠ পর্যায়ে দেয়া সম্ভব হয়নি।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র