এসএসসি পরীক্ষার প্রশংসাপত্র নিতে ৪০০ টাকা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, পাবনা
ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

  • Font increase
  • Font Decrease

চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্র দেওয়ার নামে জনপ্রতি ৪শ টাকা করে নেয়া হচ্ছে।

পাবনার ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে এই চাঁদাবাজির ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে এসএসসি পরীক্ষার প্রশংসাপত্র তৈরিতে সর্বোচ্চ ১০ টাকা খরচ হয়। তবে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সঙ্গে যোগসাজশে অধ্যক্ষ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জোরপূর্বক ৪শ টাকা করে আদায় করছেন। ইতোমধ্যে ১২৮ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫১ হাজার ২শ টাকা আদায় করা হয়েছে।

একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তি হতে প্রতিষ্ঠানের প্রশংসাপত্র প্রয়োজন হয়। সে লক্ষ্যেই প্রশংসাপত্র নেয়ার জন্য স্কুলে গিয়েছিল তারা। কিন্তু অফিস সহকারী তাদের কাছ থেকে জনপ্রতি ৪শ টাকা করে আদায় করেছে।

এ ঘটনায় অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘আমাদের এই প্রতিষ্ঠানটি বেসরকারি এমপিও ভুক্ত। প্রতিষ্ঠান চালাতে গেলে অনেক খরচ হয়। তাছাড়া আমি যোগদানের পর থেকেই জেনেছি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্তেই এই টাকা আদায় করা হয়।’

এদিকে অন্যান্য পরীক্ষার সময়ও বিভিন্ন অজুহাতে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। তবে অভিযোগটি অস্বীকার করেন অধ্যক্ষ মো. আসলাম হোসেন।

ঈশ্বরদী উপজেলা শিক্ষা অফিসার সেলিম আক্তার জানান, এভাবে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার নিয়ম নেই।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহাম্মদ হোসাইন ভূঁইয়া জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ দেয়নি। খোঁজ নিয়ে ঘটনার সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :