বেনাপোলে আমদানি পণ্য বহনের আড়ালে ফেনসিডিলের চালান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বেনাপোল(যশোর)
উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিলের সঙ্গে ২ জনকে আটক করা হয়, ছবি: বার্তা২৪

উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিলের সঙ্গে ২ জনকে আটক করা হয়, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

বন্দরনগরী বেনাপোল থেকে আমদানি পণ্য বহনকারী একটি কাভার্ড ভ্যান থেকে ৩৩৩ বোতল ফেনসিডিলের একটি চালান আটক করছে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা। এ সময় চালক আলী আকবার ও সহকারী আব্দুর রহিমকে আটক করা হয়।

রোববার (৩০ জুন) রাত ৮টায় আটককৃতদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এর আগে রোববার বিকালে বন্দরের ৬ নং গেটের সামনে থেকে কাভার্ড ভ্যানের ক্যাবিনে রক্ষিত এ ফেনসিডিলের চালান উদ্ধার ও তাদের আটক করে পুলিশ।

আটককৃত আলী আকবার বেনাপোল পোর্ট থানার নারানপুর নতুন পাড়ার মুছা গাজীর ছেলে এবং আব্দুর রহিম একই গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে।

যশোর জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের এসআই মুরাদ হোসেন বার্তা২৪কে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন বেনাপোল বন্দরের ৬ নং গেটের সামনে ঢাকা মেট্রো-ট-২২-২৯৬৮ নাম্বারের একটি কাভার্ড ভ্যানে আমদানি পণ্য পরিবহনের আড়ালে বিপুল পরিমাণে ফেনসিডিলের চালান দেশের অভ্যন্তরে পাচার হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালিয়ে কাভার্ড ভ্যানের ক্যাবিনের ভেতর ড্রাইভারের সিটের পেছনে রক্ষিত টুলবক্স থেকে অভিনব কায়দায় সাজানো ৩৩৩ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এসময় পাচারের সঙ্গে জড়িত দুই জনকে আটক করা হয়। এছাড়া আর এক পাচারকারী বেনাপোলের কাগমারি এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আলাউদ্দিন পালিয়ে যায়।

বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল লতিফ বিষয়টি বার্তা২৪কে নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা হয়েছে। সোমবার (১ জুলাই) দুপুরে আটককৃতদের যশোর আদালতে প্রেরণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :