বান্দরবানে ত্রিশ হাজার মানুষ পানিবন্দী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, বান্দরবান
অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানে সাতটি উপজেলায় পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন হাজারো মানুষ। ছবিটি জেলা শহরের মধ্যমপাড়া এলাকা থেকে তোলা।

অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানে সাতটি উপজেলায় পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন হাজারো মানুষ। ছবিটি জেলা শহরের মধ্যমপাড়া এলাকা থেকে তোলা।

  • Font increase
  • Font Decrease

অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানে সাতটি উপজেলায় প্রায় ত্রিশ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। প্রধান সড়ক প্লাবিত হওয়ায় গত ৪ দিনেও চালু হয়নি বান্দরবানের সঙ্গে সারাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা। রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, লামা, আলীকদম উপজেলার সঙ্গে অভ্যন্তরীণ সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থাও বন্ধ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় একের পর সড়ক ও গ্রাম প্লাবিত হচ্ছে। শুক্রবার (১২ জুলাই) সকালেও বান্দরবানে ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে।

জানা গেছে, গত শনিবার থেকে বান্দরবানে অবিরাম বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বান্দরবান সদর, রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি, লামা, আলীকদম এবং নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় প্রায় ত্রিশ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েন। উপজেলা এবং পৌরসভার বেশিরভাগ সড়ক প্লাবিত হওয়ায় অভ্যন্তরীণ সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/12/1562899026864.jpg
বন্যার পানিতে প্রধান সড়কের বাজালিয়া, দস্তিরদাহাট, বরদুয়ারা নামে তিনটি স্থানে সড়ক প্লাবিত হওয়ায় চারদিনেও চালু হয়নি সারাদেশের সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। চারদিন ধরে প্রধান সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় বান্দরবানে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের সংকট দেখা দিয়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্যে নেমে এসেছে মন্দা ভাব।

জেলার সাতটি উপজেলায় ১২৬টি আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন হাজারো পানিবন্দী মানুষ। অবিরাম বর্ষণে বান্দরবানে পাহাড় ধসের শঙ্কাও বাড়ছে। পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে মাইকিং করেছে করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :