ভোগান্তি থেকে রেহাই চান তারা



খন্দকার সুজন হোসেন ও সোহেল মিয়া, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, শিমুলিয়া ফেরি ঘাট থেকে
দীর্ঘসময় ধরে নদী পারের জন্য অপেক্ষা করছেন পরিবহন চালকরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

দীর্ঘসময় ধরে নদী পারের জন্য অপেক্ষা করছেন পরিবহন চালকরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী নৌরুট। এ নৌরুট দিয়ে প্রতিদিন দুই হাজারের বেশি যানবাহন পারাপার হয়। এর মধ্যে ছোট গাড়ির সংখ্যা অর্ধেকেরও বেশি। আর বাকি গাড়ি যাত্রীবাহী বাস ও পণ্যবাহী ট্রাক।

তবে নৌরুটটি দিয়ে যারা নিয়মিত নদী পারাপার হচ্ছেন, তাদের ভোগান্তির শেষ নেই। নদী পারের জন্য ঘাট এলাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয় তাদের। এই ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেতে চান তারা। এর জন্য তারা চেয়ে আছেন স্বপ্নের পদ্মা সেতুর দিকে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/14/1563117909267.jpg
যাত্রীর অপেক্ষায় লঞ্চ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

 

রোববার (১৪ জুলাই) শিমুলিয়া ফেরি ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, শনিবার (১৩ জুলাই) থেকে নদী পারের জন্য টার্মিনালে অপেক্ষা করছে প্রায় ৩০০ পণ্যবাহী ট্রাক। তবে ঘাট এলাকায় ছোট গাড়ি ও বাসের তেমন চাপ নেই।

যশোরের উদ্দেশে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রাক চালক আব্দুর রশিদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, তিনি শনিবার থেকে এখানে অপেক্ষা করছেন নদী পারের জন্য। কিন্তু রোববার সন্ধ্যা পর্যন্তও তিনি ফেরির দেখা পাননি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/14/1563117969861.jpg
যাত্রীর অপেক্ষায় স্পিডবোট, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

 

বনফুল বাসের চালক কবির হোসেন জানান, তিনি এই নৌরুটে দীর্ঘদিন ধরে বাস চালাচ্ছেন। প্রতিনিয়তই ঘাটে এসে তিনি বিড়ম্বনার শিকার হন। বিড়ম্বনা থেকে রক্ষা পেতে তাই পদ্মা সেতুর জন্য অপেক্ষা করছেন তিনি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) প্রফুল্ল চৌহান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, যানবাহন পারাপারের জন্য এই নৌরুটে ১৫টি ফেরির মধ্যে ১১টি ফেরি চলাচল করছে। তীব্র স্রোতের কারণে বাকি চারটি ফেরি চলাচল করতে না পারায় সেগুলো বসে আছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/14/1563118055179.jpg
নদী পারের অপেক্ষায় ট্রাক, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

 

বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ জানায়, এই রুটে ৮৭টি লঞ্চ ও প্রায় সাড়ে ৩০০ স্পিডবোট চলাচল করছে।