Barta24

রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

English

জিপিএ-৫ না পেয়ে ছাত্রীর আত্মহত্যা

জিপিএ-৫ না পেয়ে ছাত্রীর আত্মহত্যা
প্রতীকী
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বগুড়া


  • Font increase
  • Font Decrease

এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ না পেয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তামিমা ইসলাম ফেনি নামে এক ছাত্রী। আত্মহত্যাকারী ওই শিক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৯৬ পেয়েছেন।

বুধবার (১৭ জুলাই) বগুড়ার ঠনঠনিয়া তেঁতুলতলা এলাকায় ভাড়া বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই শিক্ষার্থী।

তামিমা ইসলাম ফেনি নওগাঁর রানীনগরের সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার ফরিদুল ইসলামের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী তামিমা ইসলাম রংপুর ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেন। তার প্রত্যাশা ছিল জিপিএ-৫ পেয়ে মেডিকেল কলেজে ভর্তি হবেন। মেডিকেলে ভর্তি হওয়ার জন্য পরিবারসহ বগুড়ায় বাসা ভাড়া নিয়ে ভর্তির প্রস্তুতি কোচিং করছিলেন তিনি।

প্রতিবেশীরা জানান, এইচএসসি পরীক্ষার রেজাল্টে জিপিএ ৪.৯৬ পাওয়ার পর তামিমা ইসলাম কান্নায় ভেঙে পড়েন। দুপুরের পর ঘরের ভেতরে গিয়ে দরজা লাগিয়ে দেন। পরে তিনি ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। ঘটনাটি তার মা বুঝতে পেরে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বগুড়া সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল করিম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম বলেন, তামিমার মরদেহ সুরতহালের রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

তেল ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন

তেল ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে নোয়াখালীতে ২ জনের যাবজ্জীবন
ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালী সদর উপজেলার জ্বালানি তেল ব্যবসায়ী আরিফ হোসেনকে হত্যার দায়ে দুই জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২৫ আগস্ট) দুপুরে নোয়াখালীর অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ ফারুক এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- চর দরবেশ গ্রামের আরিফুর রহমান পিয়াস ও মোরশেদ আলী সুমন। দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিই পলাতক রয়েছেন।

দুই জনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া দণ্ডবিধির ৪১১ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে উভয় আসামিকে তিন বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. জাকারুল ইসলাম বলেন, 'নিহত ব্যবসায়ী আরিফ পারিবারিকভাবে ভাইদের সঙ্গে জ্বালানি তেলের ব্যবসা করতেন। ২০১৪ সালের ১৭ এপ্রিল তেল বিক্রির বাকি টাকা তোলার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন তিনি। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আমির হোসেন সুধারাম মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।'

পরের দিন ১৮ এপ্রিল চর দরবেশ গ্রামে আসামি আশিকুর রহমান পিয়াসের বসত ঘরের পাশের কচুক্ষেত থেকে মাটি খুঁড়ে নিখোঁজ আরিফের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই দিনই আমির হোসেন বাদী হয়ে আরিফুর রহমান পিয়াস ও মোরশেদ আলীসহ ছয়জনকে আসামি করে সুধারাম মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালতে রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাড. মো. বোরহান আহমেদ ও এড.মাহমুদ হাসান। অপরদিকে, আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা- করেন অ্যাড. হারুনুর রশিদ হাওলাদার ও অ্যাড. স্বপন চন্দ্র পাল।

লালমনিরহাটে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

লালমনিরহাটে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক
মরদেহ উদ্ধার, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় স্ত্রী পুর্নিমা রানী (৩০) কে হত্যার অভিযোগে ঘাতক স্বামী রবি বর্ম্মনকে (৩৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৫ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ গোবদার নিজ বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৩ বছর আগে উপজেলার ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের কৈমারী গ্রামের মৃত ধীরেন্দ্র নাথের মেয়ে পুর্নিমা রানীর সাথে একেই গ্রামের রবি বর্ম্মনের বিয়ে হয়।

শনিবার (২৪ আগস্ট) বিকেলে দুই ছেলে মেয়ে দুষ্টুমি করলে তাদের মারধর করেন রবি বর্ম্মন। এমনকি রাতেও ঘুম থেকে তুলে আবার দুই সন্তানকে মারধর করেন। এক পর্যায়ে স্ত্রী পুর্নিমা রানী তাকে বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী পুর্নিমা রানীকে গলা চিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। হত্যার পর স্ত্রীর মরদেহ ঘরের ভেতরে লুকিয়ে রাখেন।

পরে রোববার (২৫ আগস্ট) সকালে মরদেহের দুর্গন্ধ পেয়ে প্রতিবেশীরা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে। এ সময় স্বামী বর্ম্মনকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় পুর্নিমা রানীর বোন বাদী হয়ে রোববার দুপুরে আদিতমারী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, পুর্নিমা রানীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং নাকে মুখে আসা রক্ত দেখে হত্যাকাণ্ড বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় স্বামী রবি বর্ম্মনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র