চাঁদপুরে মেঘনায় ভাঙন, ৬ বসতঘর বিলীন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, চাঁদপুর
নদীতে ভাঙনে ৬ বসতঘর বিলীন হয়ে গেছে, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

নদীতে ভাঙনে ৬ বসতঘর বিলীন হয়ে গেছে, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চাঁদপুর শহরের রক্ষাবাঁধের পুরাণবাজার হরিসভা এলাকায় মেঘনা নদীতে ভাঙনে মুহূর্তের মধ্যে ৬ বসতঘর বিলীন হয়ে গেছে। 

শনিবার (৩ আগস্ট) রাত পৌনে ৯ টার দিকে হরিসভা মন্দির কমপ্লেক্স গেইটের সম্মুখ স্থান দিয়ে হঠাৎ শহর রক্ষাবাঁধের ব্লক ধসে পড়ে। ভাঙনে মরন সাহার বাড়ির ছয়টি বসতঘর নদীতে বিলীন হয়ে যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/04/1564859467983.jpg

 

হরিসভা রাস্তাসহ আশপাশের অনেকটা এলাকাজুড়ে বড় ধরনের ফাটল দেখা দিয়েছে। রাতের মধ্যেই বহু স্থাপনা নদীতে চলে যাবার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

নদী ভাঙনের খবর পেয়ে চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও স্থানীয় কাউন্সিলর ছিদ্দিকুর রহমান ঢালী, পুরাণবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর শহীদ হোসেন, এসআই জাহাঙ্গীর আলমসহ হরিসভা মন্দির কমিটি, লোকনাথ মন্দির কমিটির সদস্যসহ শতশত মানুষ সেখানে ছুটে যান। ভাঙনের মুখে থাকা ঘরবাড়ি ভেঙে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/04/1564859286251.jpg
ভাঙনের মুখে থাকা ঘর বাড়ি ভেঙে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে

 

নদী ভাঙনের খবরটি জেলা প্রশাসককে অবহিত করা হয়েছে বলে প্যানেল মেয়র ছিদ্দিকুর রহমান ঢালী জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, এর আগেও কয়েক দফা ভাঙনের শিকার হয় হরিসভা এলাকা। প্রতিবারই পানি উন্নয়ন বোর্ড ভাঙন ঠেকাতে কাজ করেছেন। আবারও সেখানে ভাঙন শুরু হওয়ায় হরিসভা, মধ্যশ্রীরামদী ও পশ্চিম শ্রীরামদী এলাকাগুলো এখন মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে। 

আপনার মতামত লিখুন :