‘ধান-চাল সংগ্রহে অনিয়ম হলে ছাড় নয়’

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঝিনাইদহ
খাদ্য গুদাম পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

খাদ্য গুদাম পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

অভ্যন্তরীণ ধান-চাল সংগ্রহে কোনো অনিয়ম বা দুর্নীতি হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

তিনি বলেছেন, ‘যেসব স্থানে অনিয়ম দুর্নীতি প্রমাণিত হয়েছে। সেখানে দোষীদের সাসপেন্ড করা হয়েছে। বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কোনো কোনো জায়গায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।’

রোববার (৪ আগস্ট) বিকেলে ঝিনাইদহ সদরে খাদ্য গুদাম পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তালিকাভুক্ত কৃষক খাদ্যগুদামে ধান দিতে পারছেন না এমন সংবাদ যেখানেই পাচ্ছি সেখানেই লোক পাঠাচ্ছি। শুধু তাই না, মন্ত্রণালয় ও অধিদফতর মিলে ২০টি টিম এ বিষয়ে মনিটরিংয়ে আছে। তারা বিভিন্ন জেলায় গিয়ে কাজ করছে। কোনো স্থানে ধান বিক্রিতে যদি অনিময় হয়, তাহলে সেখানে তদন্ত করা হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অন্যান্য বারের চেয়ে এ বছর ধান ও চাল সংগ্রহ অনেক সুষ্ঠুভাবে হয়েছে। আমরা মনে করি, এ বছর রাজনৈতিক চাপ নেই।’

পরিদর্শনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন- খাদ্য বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আবদুল আজিজ মোল্লা, খুলনা বিভাগীয় আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক ড. এস এম মহসীন, ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড, আব্দুর রশিদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম সোম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম, জেলা চালকল মালিক সমিতির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেনসহ অন্যান্যরা।

আপনার মতামত লিখুন :